শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

কোক স্টুডিওর নতুন গানে নকলের অভিযোগ, যা বললেন অর্ণব

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২২, ২১:৩১

‘নাসেক নাসেক’ গান দিয়ে গেল ফেব্রুয়ারিতে যাত্রা করেছে ‘কোক স্টুডিও বাংলা’। এরপর একের পর এক দুর্দান্ত গান দিয়ে দর্শক-শ্রোতাদের মাতিয়ে রেখেছিলো গানের প্ল্যাটফমটি।

ফিউশনভিত্তিক এই সংগীতানুষ্ঠানের প্রথম সিজনে এরইমধ্যে আটটি গান প্রকাশিত হয়েছে। দেশের নামি শিল্পীদের দিয়ে গান করালেও তাহসান খানের গানে এসে পড়তে হলো ফ্যাসাদে।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) প্রকাশ্যে আসে কোক স্টুডিও বাংলার অষ্টম গান। এর নাম ‘দখিনও হাওয়া’। মীরা দেব বর্মনের লেখা ও সচীন দেব বর্মনের গাওয়া বিখ্যাত গানটি নতুন করে গেয়েছেন ভারতীয় শিল্পী মধুবন্তী বাগচী।

ওই গানের সঙ্গে নতুন কয়েকটি লাইন যুক্ত করে ফিউশন করা হয়েছে। সেটুকু গেয়েছেন সংগীত তারকা তাহসান। এই অংশটুকু নিয়েই উঠেছে নকলের অভিযোগ।

ছবি: সংগৃহীত

অনেকের দাবি, এই অংশের সুর মার্কিন কণ্ঠশিল্পী ক্লাইরোর গান ‘সোফিয়া’ থেকে নকল করা হয়েছে। 

২০১৯ সালে ইউটিউবে প্রকাশিত ক্লাইরোর ওই গানটির মিউজিকের সঙ্গে কোক স্টুডিওর গানটির শেষ দিকের মিউজিক মিলে যায়। তবে এই মিলকে একেবারেই কাকতালীয় বলে দাবি করেছেন অর্ণব। তিনি কোক স্টুডিও বাংলার মূল মিউজিক প্রোডিউসার এবং এই গানের সংগীতায়োজক।

অর্ণব জানান, তিনি কখনো ক্লাইরোর ‘সোফিয়া’ গানটি শোনেননি। তাই মিল পাওয়া গেলেও সেটা কাকতালীয়। অর্ণবের ভাষ্য, ‘এত বড় আয়োজনের গান নকল করার প্রশ্নই আসে না। তবে অনাকঙ্খিতভাবে সুর মিলে গেলে আমাদের কী করার আছে।’

উল্লেখ্য, বিখ্যাত ‘শোনো গো দখিনও হাওয়া’ গানের সঙ্গে যুক্ত করা নতুন অংশটি লিখেছেন গাউসুল আলম শাওন। এর সুর সাজিয়েছেন অর্ণব। শোনা যাচ্ছে, এটি কোক স্টুডিও বাংলার প্রথম সিজনের শেষ গান। যদিও এসব বিষয়ে আয়োজনটির কর্তৃপক্ষ বরাবরই মুখে কুলূপ এঁটে থাকেন।

ইত্তেফাক/বিএএফ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন