রোববার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

রক্সি পেইন্টের কর্মকর্তা হত্যা মামলায় বাপ-ছেলে গ্রেফতার

আপডেট : ০৮ আগস্ট ২০২২, ১৪:৫১

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় রক্সি পেইন্টের এরিয়া ম্যানেজার লোকমান হোসেন হত্যা মামলার মূল আসামি বাপ-ছেলেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১২ কুষ্টিয়া।

সোমবার (৮ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১০টার সময় র‌্যাব-১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের সম্মেলন কক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার ইলিয়াস খান। 

গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলেন- ভেড়ামারা শহরের রেলগেট দক্ষিণ পাড়া এলাকার মৃত দাউদ খন্দকার ওরফে মতিয়ার রহমানের ছেলে ও দর্পণ হার্ডওয়ারের মালিক দর্পণ আলী (৬০) ও দর্পণ আলীর ছেলে সোহানুর রহমান সোহান (২২)।

ইলিয়াস খান জানান, গত ৩ আগস্ট কুষ্টিয়া ভেড়ামারা সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের গলির পাশে পলিথিন দ্বারা মোড়ানো অবস্থায় একটি অজ্ঞাত পরিচয়ের মৃতদেহ উদ্ধার করে ভেড়ামারা থানা পুলিশ। পরবর্তী সময়ে মৃতদেহটি রক্সি পেইন্ট কোম্পানি লিমিটেডের কুষ্টিয়া অঞ্চলের এরিয়া ম্যানেজার লোকমান হোসেনের বলে তার স্ত্রী শনাক্ত করেন। লোকমান হোসেন গত ১ আগস্ট কুষ্টিয়া শহরে তার ভাড়া বাসা থেকে কোম্পানির মালের অর্ডার নেওয়া ও বকেয়া বিল আদায়ের জন্য ভেড়ামারা এলাকার উদ্দেশে বের হন। ওইদিন বিকালে তার স্ত্রী লোকমান হোসেনের মোবাইল ফোনে কল দিলে ফোন বন্ধ পান এবং এরপর থেকে নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় তার স্ত্রী গত ২ আগস্ট ভেড়ামারা থানায় তার স্বামী নিখোঁজ বলে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এরপর নিহতের স্ত্রী জিন্নাত আরা টুম্পা বাদী হয়ে ৩ আগস্ট ভেড়ামারা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-১২ সিপিসি-১, কুষ্টিয়া ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল র‌্যাব সদর দপ্তরের গোয়েন্দা শাখার সহায়তায় আসামির বোনের ঢাকার সাভারের বাসা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মামলার আসামি সোহানুর রহমান সোহান লোকমান হোসেন হত্যাকাণ্ডে তার সক্রিয় অংশগ্রহণের কথা প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে।

ইত্তেফাক/মাহি