বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

যুক্তরাষ্ট্রকে আর পরমাণু অস্ত্রসম্ভার পরিদর্শনে সুযোগ দেবে না রাশিয়া

আপডেট : ১১ আগস্ট ২০২২, ০৮:০১

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন নিয়ে যে সংকটের সৃষ্টি হয়েছে তা মস্কো-ওয়াশিংটনের অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তিতেও প্রভাব ফেলেছে। সোমবার মস্কো সাফ জানিয়ে দিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রকে আর পরমাণু অস্ত্রসম্ভার পরিদর্শনের সুযোগ দেবে না রাশিয়া। ‘নিউ স্টার্ট’ অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তি অনুযায়ী রাশিয়ার পারমাণবিক অস্ত্রভান্ডারের সাইটে গিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের এত দিন পরিদর্শনের সুযোগ ছিল। সেই সুযোগ আপাতত বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া। এর ফলে দুই দেশের মধ্যে বৈরিতার আরো নতুন এক ধাপের সূচনা হলো।

মস্কো জানিয়েছে, এই চুক্তি ব্যবহার করে যুক্তরাষ্ট্র সুবিধাজনক অবস্থানে থাকতে চাইছে। কিন্তু মার্কিন ভূখণ্ডে যুক্তরাষ্ট্রের যেসব পরমাণু অস্ত্র রয়েছে সেগুলো পরিদর্শনের অধিকার থেকে রাশিয়াকে বঞ্চিত করেছে। আর ইউক্রেন যুদ্ধকে কেন্দ্র করে রাশিয়ার ওপর যেসব নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্র জারি করেছে তা দুই দেশের মধ্যকার পরিস্থিতি বদলে দিয়েছে। ‘নিউ স্টার্ট’ চুক্তি কার্যকর হয়েছিল ২০১১ সালে। শীতল যুদ্ধকালীন দুই প্রতিপক্ষ দেশের মধ্যে যেসব অস্ত্র হ্রাস চুক্তি ছিল, সেগুলোর মধ্যে এটিই শেষ চুক্তি যা আনুষ্ঠানিকভাবে এখন পর্যন্তও কার্যকর রয়েছে। মস্কোও চুক্তি থেকে সরাসরি নিজেকে প্রত্যাহারের কথা বলছে না। তারা শুধু ‘সাময়িকভাবে’ রাশিয়ার কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্রগুলো সাইটে গিয়ে পরিদর্শনের সুযোগ যুক্তরাষ্ট্রকে দিচ্ছে না। ঐ চুক্তিতে বলা হয়েছিল, এই দুটি দেশ অস্ত্রের মুখে বসানোর জন্য সর্বোচ্চ ১ হাজার ৫৫০টি দূরপাল্লার পারমাণবিক বোমা রাখতে পারবে।

রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, চুক্তিতে ‘বিশেষ পরিস্থিতি’ উল্লেখ করে যে শর্ত রাখা হয়েছিল সেটি ব্যবহার করেই এই চুক্তি তারা সাময়িকভাবে স্থগিত করেছে। রাশিয়া এই ঘোষণা দেওয়ার এক সপ্তাহ আগেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছিলেন, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে নতুন একটি পরমাণু অস্ত্র চুক্তি সম্পাদনের কাজ করতে তিনি তৈরি আছেন। বর্তমান চুক্তিটির মেয়াদ ২০২৬ সালে শেষ হয়ে যাবে। রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ‘বর্তমান বাস্তবতা’ অগ্রাহ্য করার অভিযোগ করেছে। বর্তমান বাস্তবতা প্রসঙ্গে রাশিয়া বলেছে, দুই দেশের মধ্যে ‘স্বাভাবিক বিমান যোগাযোগ স্থগিত করা হয়েছে।’

পারমাণবিক যুদ্ধ প্রতিহত করার লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্র আর সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের মধ্যে অস্ত্র হ্রাস করা নিয়ে বহু বছর ধরে আলোচনা চলার পর এই ‘নিউ স্টার্ট’ অস্ত্র চুক্তি হয়। ফেব্রুয়ারি মাসে ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন শুরুর পর থেকে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্টেÌর বৈরিতা বেড়েছে। এমনকি এমন হুঁশিয়ারিও এসেছে যে, এই সংঘাত থেকে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়ে যেতে পারে। রাশিয়ার রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যমে কোনো কোনো ভাষ্যকার ন্যাটোর সঙ্গে বর্তমান উত্তেজনার প্রেক্ষাপট বিশ্লেষণ করতে গিয়ে মস্কোর বিশাল পারমাণবিক অস্ত্রভাণ্ডার থাকার বিষয়টির কথা উল্লেখ করেছেন।

ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে এই পদক্ষেপ নিয়েছে রাশিয়া। মস্কো জানিয়েছে, ‘নিউ স্টার্ট’ অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তি অনুযায়ী রাশিয়ার পারমাণবিক অস্ত্রভান্ডারের সাইটে গিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের যে এত দিন পরিদর্শনের সুযোগ ছিল তা আপাতত বন্ধ করা হচ্ছে। এর ফলে দুই দেশের মধ্যে বৈরিতার আরো নতুন এক ধাপের সূচনা হলো

ইত্তেফাক/ইআ