বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

চীনে ফেরা হলো না জাহিনের

আপডেট : ১২ আগস্ট ২০২২, ১৪:৩৪

মেজবাহ উদ্দীন জাহিন (২৪) সাতক্ষীরার তালা উপজেলার জুজখোলা গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে। সে চীন থেকে মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং পড়াশুনা করতো। কিছুদিন আগে ছুটি নিয়ে এসেছিল নিজ বাড়িতে বেড়াতে। কদিন পরেই চীনে ফিরে যাওয়ার কথা ছিল। নম্র, ভদ্র ও মেধাবি ছাত্র জাহিনের আর কোনদিন ফেরা হবে না। একটি ট্রাকের ধাক্কায় নিভে গেল তার জীবন প্রদীপ। সেইসঙ্গে ভেস্তে গেল পরিবারে স্বপ্ন।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) রাতে খুলনার নগরীর হরিণটানা থানার গাজীর মার্কেটের সামনে একটি দ্রুতগামী ট্রাক ধাক্কা দেয় তার মোটরসাইকেলে। সাথে সাথে জীবন প্রদীপ নিভে যায় জাহিনের। তিন ভাইয়ের মধ্যে জাহিন সকলের বড়। তার পিতা নজরুল ইসলাম সাতক্ষীরা জজকোর্টের পেশকার। শুক্রবার (১২ আগস্ট) জুম্মার নামাজের পর জানাযা শেষে পারিবারিক কবর স্থানে তাকে সমাহিত করা হয়।

জাহিনের চাচাতো ভাই আবু সেলিম জানায়, জাহিন ও তার ফুফাতো বোনাই মাসুম বিল্লাহ বৃহস্পতিবার সকালে খুলনাতে তার ফুফুর বাড়িতে বেড়াতে যায়। রাতে মোটরসাইকেলে চড়ে খুলনা থেকে বাড়িতে আসছিল। হরিণটানা থানার গাজীর মার্কেটের (জয়বাংলা মোড়) এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাক তাদের ধাক্কা দেয়।  এতে ওই দুইজন মোটরসাইকেল থেকে রাস্তার ওপর ছিটকে পড়ে যায়। এসময় ট্রাকের একটি চাকা মেজবাহর শরীরের ওপর দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই  তার মৃত্যু। গুরুতর আহত হয় চালক মাসুম বিল্লাহ। বর্তমানে তিনি খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

হরিণটানা থানার ওসি মো. ইমদাদুল হক বলেন, দুর্ঘটনার সময় বৃষ্টি হচ্ছিল। দুর্ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে একজনকে মৃত ও অপরজনকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। তারা সকালে খুলনায় কাজে এসেছিল। কাজ শেষ করে রাতে তারা তালার পাটকেলঘাটা এলাকায় ফিরে যাচ্ছিল। তবে ঘাতক ট্রাক বা চালক কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি বলে তিনি জানান।

ইত্তেফাক/এমআর