বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মিশা চলচ্চিত্রের জন্য কি করেছে, প্রশ্ন অনন্ত জলিলের

আপডেট : ১৩ আগস্ট ২০২২, ২১:০৬

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে অনন্ত জলিলের ‘দিন দ্য ডে’। ছবিটিতে একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর। কিন্তু তিনিই অনন্তের সমালোচনা করেছেন। মিশা বলেন, "দিন : দ্য ডে’ সিনেমা দিয়ে ইন্ডাস্ট্রির কোন লাভ নেই। ১২০ কোটি টাকার সিনেমা আমাদের এখানে বানানোর সম্ভব নয়। এত টাকার সিনেমা চলবে কোথায়, টাকাটা উঠবে কীভাবে?’ এবার সেই সমালোচনার জবার দিলেন অনন্ত-বর্ষা।
 
শনিবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে অনন্ত জলিল বলেন, ‘বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের উন্নয়নে মিশা সওদাগরের কোন অবদান নেই। যিনি চলচ্চিত্রের শতাধিক শিল্পীকে বের করে দিতে পারে তার দ্বারায় চলচ্চিত্রের কি উন্নতি হবে? এই চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতে মিশা ২বার ক্ষমতায় ছিল। ঘটা করে শিল্পী সমিতিতে তারা বর্ষার জন্মদিনের অনুষ্ঠানের অয়োজন করেছে। এই শিল্পী সমিতিতে আমি ৫ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছি। সমিতি থেকে মিশা যাদের বাদ দিয়েছে তাদের আমি তিন বার সহায়তা দিয়েছি। চলচ্চিত্রের ১৭টি সংগঠনের পাশে আমি দাঁড়িয়েছি। কিন্তু মিশা কার পাশে দাঁড়িয়েছে? তার দ্বারায় চলচ্চিত্রের কি উন্নতি হয় যে তিনি বড় বড় কথা বলেন?’

অনন্ত আরও বলেন, ‘মিশা ভাই একজন শিল্পী। তার কোনো ক্রিয়েটিভিটি নেই। উনি টাকা পান এবং অভিনয় করেন। আর আমি সিনেমা নির্মাণ করি। টাকা লগ্নি করি। আমার হাত ধরে উনি বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল সিনেমায় অভিনয় করেন। তাই বলব, আমি আমার মতো করে সিনেমা বানাব সেটা আমাদের দেশীয় সিনেমা হবে।’

মিশা সওদাগরের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক ছিলো অনন্ত-বর্ষা জুটির। সেই সম্পর্ক এখন কেনো নেই সে কথা জানান বর্ষা। তিনি বলেন, ‘আমরা সবাই শিল্পী। সেই জায়গা থেকে একে অপরের পাশে আমরা দাঁড়াবো- সেটাই হওয়া উচিত। প্রথমবার যখন শিল্পী সমিতির নির্বাচন হয় তখন আমি ভোট দিতে গিয়েছি। এমনকি মিশা ভাইকে ভোট দিয়ে ছবি তুলে তাকে দেখিয়েছি। যাতে তিনি  খুশি থাকেন।’

তিনি আরও বলেন, মিশা ভাই আমাকে নাম ধারে ডাকেন না। তিনি আমাকে বোন বলে ডাকেন। কিন্তু উনি কেন আমাদের নিয়ে বাজে মন্তব্য করলেন তা আমার কাছে পরিস্কার।। আমার মনে হয় ‘নেত্রী-দ্য লিডার’ সিনেমায় তাকে কাস্ট করিনি বলেই তিনি আমাদের বিরুদ্ধে কথা বলেছেন।’

 

ইত্তেফাক/বিএএফ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন