শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

‘উত্থাপনের দিনই চলচ্চিত্র বিলটি পাস করিয়েছেন বঙ্গবন্ধু’

আপডেট : ১৫ আগস্ট ২০২২, ১৬:২২

১৯৫৭ সালে ৩ এপ্রিল প্রাদেশিক পরিষদে বাংলাশের চলচ্চিত্রের বিলটি উত্থাপন করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলে জানিয়েছেন চলচ্চিত্রের ১৮টি সংগঠনের মুখপাত্র বর্ষিয়ান অভিনেতা আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘ওই দিনই তিনি বিলটি পাস করান। একই সঙ্গে এই এফডিসির ফাউন্ডেশনও তিনিই দিয়েছিলেন। তিনি চেয়েছিলেন বাংলাদেশে চলচ্চিত্র হবে এবং তাই হয়েছে।’

জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদৎবার্ষিকী উপলক্ষে সোমবার বেলা ১২টার দিকে এফডিসিতে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন। 

ছবি: ইত্তেফাক

এ সময় এফডিসিকেন্দ্রিক ১৮টি সংগঠন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি, পরিচালক সমিতি, প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতির মতো সংগঠনগুলো বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।

আলমগীর বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু আমাদের এফডিসি করে দিয়েছেন বলেই আমরা তাঁকে স্মরণ করছি এমনটা নয়। তিনি আমাদের বাঙালি জাতির পিতা। আমাদের দেশের প্রতিটি মানুষ তাঁর কাছে কৃতজ্ঞ যে, তিনি আমাদের স্বাধীন-সার্বভৌম একটি রাষ্ট্র দিয়ে গেছেন। তিনি না থাকলে আজ বাংলাদেশ হতো না। আজ শ্রদ্ধাভরে আমরা তাঁকে স্মরণ করে কাঙালি ভোজ দিয়ে কিছুটা ঋণ শোধ করি। এদেশের সমস্ত বাঙালি তাঁর কাছে ঋণী। দেশবাসীর কাছে আমার অনুরোধ সবাই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দোয়া করবেন।’

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে শোক দিবসের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। এফডিসির আনুষ্ঠানিকতা শেষে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নেতারা ধানমন্ডি ৩২-এ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। সেখান থেকে তারা যান বনানী কবরস্থানে।

ছবি: ইত্তেফাক

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া এই চলচ্চিত্র ইন্ড্রাস্টি আজকের যে অবস্থায় আছে সেটা আরও উন্নত করতে হলে সরকারের পৃষ্ঠপোষকতা বৃদ্ধি করা দরকার। সবারই বোঝা দরকার, তার হাতে গড়া এই ইন্ডাস্ট্রি যেন ধ্বংস হয়ে না যায়। বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদৃষ্টি এই এফডিসির দিকে আছে। তিনি আমাদের জন্য অনেক উদ্যোগ নিচ্ছেন। এখানে আসার পর তার সঙ্গে আমাদের মতবিনিময় হবে। যেগুলো যদি আমরা পালন করতে পারি তাহলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের চলচ্চিত্র আমরা টিকিয়ে রাখতে পারবো।’

ইলিয়াস কাঞ্চন আরও বলেন, ‘আমি মনে করি, কথায় নয়, বঙ্গবন্ধুকে মনে লালন করতে হবে। সেটা করতে হলে বঙ্গবন্ধুর কর্ম, আদর্শ ও তার চাওয়াগুলো আমাদের মনে রাখতে হবে। সেই সঙ্গে তা বাস্তবায়ন করতে হবে।’

ছবি: ইত্তেফাক

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি সোহানুর রহমান সোহান বলেন, ‘স্বাধীন বাংলাদেরে রূপকার হলেন আমাদের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তার হাতেই প্রতিষ্ঠিতি এফডিসি। সেখান থেকেই কিন্তু আমরা বাংলা ভাষার চলচ্চিত্র বানাতে পারছি। সেজন্য আমরা গর্বিত। আজ আমরা তাকে শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করি এবং তার আত্মার শান্তি কামনা করি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালন করে আমরা এগিয়ে যেতে চাই।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন, শিল্পী সমিতির সহ-সভাপতি চিত্রনায়ক রিয়াজ আহমেদ, কার্যনির্বাহী সদস্য ফেরদৌস আহমেদ, চিত্রনায়িকা নিপুণ আকতার, প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু, ইকবাল হোসেনসহ চলচ্চিত্র অঙ্গনের শিল্পী কলাকুশলীরা।
 

ইত্তেফাক/বুলবুল

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন