মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

শোক ও শ্রদ্ধায় জাতির পিতাকে স্মরণ

আপডেট : ১৬ আগস্ট ২০২২, ০১:৪৪

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার শোককে শক্তিতে পরিণত করে দেশ গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করল শতসহস্র কণ্ঠ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে গতকাল সোমবার (১৫ আগস্ট)বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে মানুষের ঢল নামে। শোকাবহ ভাবগাম্ভীর্যে তারা শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে। পাশাপাশি টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধি ও বনানী কবরস্থানেও মানুষের ঢল নামে।

ভোর থেকেই স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা এবং সর্বস্তরের মানুষ জমায়েত হতে থাকে। বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসমূহ নানা আয়োজনে স্মরণ করে শোকের এই দিনকে। বিভিন্ন স্থানে মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে নিহতদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। বাদ জোহর দেশের মসজিদে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এছাড়া মন্দির, গির্জা, প্যাগোডায়ও প্রার্থনা করা হয়।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে গতকাল ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে দলের নেতৃবৃন্দসহ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা —পিএমও

সকালে ধানমন্ডির বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সামনে শোকার্ত মানুষের ঢল নামে। জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি। সকাল সাড়ে ৬টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথমে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এ সময় সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যগণ ‘গার্ড অব অনার’ প্রদান করেন। বিউগলে বাজানো হয় করুণ সুর। এরপর প্রধানমন্ত্রী ফাতেহা পাঠ এবং মোনাজাতে অংশগ্রহণ করেন। পরে দলের সভাপতি হিসেবে শেখ হাসিনা মন্ত্রিসভার সদস্য ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে গতকাল ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ। ।

শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু ও তোফায়েল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, ড. আব্দুর রাজ্জাক, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, শাজাহান খান, এ এইচ এম খাইরুজ্জমান লিটন, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, ডা. দীপু মনি, ড. হাছান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম প্রমুখ।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে গতকাল ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে শেখ হাসিনা ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের ঐতিহাসিক স্মৃতিবিজড়িত বাড়ির ভেতরে যান। সেখানে ঘুরে ঘুরে তার পিতার স্মৃতিচিহ্ন পরিদর্শন করেন এবং সেখানে প্রায় আধা ঘণ্টা সময় কাটান। এরপর তিনি বনানী কবরস্থানে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য রওনা হন।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে গতকাল ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সদস্যরা।

প্রধানমন্ত্রী ধানমন্ডি ৩২ নম্বর ত্যাগ করার পর সাধারণ মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য স্থানটি উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। এর আগেই অগণিত মানুষের পাদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে ৩২ নম্বর সড়ক। হাতে কালো ব্যানার ও বুকে কালো ব্যাজ পরিধান করে নারী-পুরুষ, স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রী, শিশু-কিশোরসহ সর্বস্তরের মানুষ। এ সময় মহানগর আওয়ামী লীগ, আওয়ামী যুবলীগ, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগ, জাতীয় শ্রমিক লীগ, কৃষক লীগ, ছাত্রলীগ, তাঁতী লীগ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে গতকাল ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

এদিকে সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বনানী কবরস্থানে প্রধানমন্ত্রী তার মা, ভাই ও ভাইদের স্ত্রীসহ ১৫ আগস্টের শহিদদের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। তাদের কবরে ফুলের পাপড়ি ছিটিয়ে দেন তিনি। এরপর পবিত্র ফাতিহা পাঠ ও মোনাজাতে অংশ নেন। এ সময় তার সঙ্গে মন্ত্রিসভার সদস্য এবং আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল

৩২ নম্বরে জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমীন চৌধুরীর পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। শ্রদ্ধা জানান জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী এমপি, জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি, মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেছা ইন্দিরা, সংসদ সচিবালয়ের সচিব কে এম আব্দুস সালাম প্রমুখ। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, তথ্য মন্ত্রণালয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা শহিদ পরিবার, জাতীয় মানবাধিকার কমিশন, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি, বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি), মহিলা শ্রমিক লীগ, ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, পাসপোর্ট অধিদপ্তর, ইসলামিক ফাউন্ডেশন, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটি, সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব পরিষদ, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়, বাংলা একাডেমি, জাতীয় জাদুঘর, শিশু একাডেমি, খেলাঘর, বাংলাদেশ বেতার, জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউট, ঢাকা আইনজীবী সমিতি, জাতীয় মহিলা সংস্থা, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট, জাতীয় কবিতা পরিষদ, যুব ইউনিয়ন, ছাত্র ইউনিয়ন, শেখ রাসেল শিশু সংসদ, বাংলাদেশ ব্যাংক, সোনালী ব্যাংক, জনতা ব্যাংক, কৃষি ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক, ঢাকাস্থ টুঙ্গিপাড়া সমিতি, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদ, সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ, শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ, আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তানসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, দল ও সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।

এদিকে রাজধানীর সোনারগাঁও রোডে রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড হাউজিং অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (রিহ্যাব) প্রধান কার্যালয়ে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে ২ হাজারের বেশি মানুষের মধ্যে খাবার বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রিহ্যাবের প্রেসিডেন্ট আলমগীর শামসুল আলামিন। বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভাপতি নাজমা পারভীনের নেতৃত্বে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা। এছাড়া দিবসটি উপলক্ষ্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশন গতকাল কোরআন খতম ও বিশেষ মোনাজাতের আয়োজন করে।

টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। পুষ্পস্তবক অর্পণের পর প্রধানমন্ত্রী সেখানে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। এ সময় সশস্ত্র বাহিনীর একটি চৌকশ দল রাষ্ট্রীয় সালাম প্রদান করে এবং বিউগলে করুণ সুর বেজে ওঠে। প্রধানমন্ত্রী এরপর দলের সভাপতি হিসেবে সিনিয়র সদস্যদের নিয়ে দলের পক্ষ থেকে জাতির পিতার সমাধিতে আরেকটি পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। আওয়ামী লীগ এবং এর বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতারাও সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার সমাধিসৌধ প্রাঙ্গণে আয়োজিত মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন। এর আগে শেখ হাসিনা ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের পর বিমান বাহিনীর একটি হেলিকপ্টারযোগে তার পৈতৃক নিবাস টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছান।

এদিকে জাতীয় প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে রক্ষিত জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে জাতীয় প্রেসক্লাব, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন, বঙ্গবন্ধু সাংবাদিক পরিষদ, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সাংবাদিক ফোরামসহ সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠন। এছাড়া হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং হাসপাতাল মসজিদে মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে।

ইত্তেফাক/ইআ