বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

প্রবাল চৌধুরীর জন্মদিনে রঞ্জন-শুভমিতার রোমান্টিক গান 

আপডেট : ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৯:১৩

স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শব্দসৈনিক ও বাংলাদেশের প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী প্রয়াত প্রবাল চৌধুরীর ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে মুক্তি পেয়েছে দুই বাংলার স্বনামধন্য মেলোডি কুইন শুভমিতা ও বাংলাদেশের সুস্থধারার সংগীতের জনপ্রিয় শিল্পী রঞ্জনের রোমান্টিক গান।

দন্ত-চিকিৎসক ও ৫ বারের জাতীয় টেবিল টেনিস চ্যাম্পিয়ন এবং জাতীয় দল থেকে স্বেচ্ছায় অবসর নেয়া মানস গানের জগতে রঞ্জন নামে পরিচিত। বাবার ৭৫তম জন্মদিনের উপহার এই গান বলে জানান রঞ্জন চৌধুরী।গানটি রেকর্ড করা হয়েছে কলকাতার ভাইব্রেশনস সটুডিওতে। গানটির সংগীতায়োজন যৌথভাবে করেছেন বাংলাদেশের সব্যসাচী রনি এবং কলকাতার সুদীপ্ত সাহা।

চট্টগ্রামের কে. এস. ডিজিটাল স্টুডিও এবং কলকাতার ভাইব্রেশনস স্টুডিওতেই সংগীতায়োজন হয়েছে। গানটি প্রকাশের পর থেকেই রঞ্জন চৌধুরীর ফেসবুক পেজে শ্রোতাদের প্রশংসা আর অভিনন্দনের জোয়ারে ভাসছেন দুই শিল্পী। মাত্র তিন দিনেই আড়াই লক্ষ ভিউ হয়। দুই বাংলার শ্রোতাদের অভিব্যক্তিই  প্রমাণ করে মেলোডিয়াস গান সবসময়ই বেঁচে থাকে। গত বছর ঈদ উল

আযহাতে শুভমিতা ও রঞ্জনের গাওয়া 'বল তো তুমি' গানটি শ্রোতাদের মাঝে ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়। এরপর থেকে দুই বাংলার শ্রোতারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আবার দুজনের মেলোডিয়াস রোমান্টিক গান শোনার ইচ্ছা প্রকাশ করতে থাকেন। শ্রোতাদের অনুরোধের প্রতি সম্মান রেখেই আবার এই প্রয়াস। গানটিতে বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের বিখ্যাত যন্ত্রশিল্পীরা তাদের নিজ নিজ যন্ত্র বাজিয়েছেন। ভাইব্রেশনস স্টুডিওতে গানটির শুটিং সম্পন্ন হয়েছে।

গানটির কথা লিখেছেন মো. ওবায়দুললাহ এবং সুর করেছেন রঞ্জন চৌধুরী। গানটি নিয়ে রঞ্জন বলেন, গানটির সংগীতায়োজনের সময় কম্পোজার সব্যসাচী রনি সন্তুর, বাঁশী,বেহালা ও স্যাক্সোফোনের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করলে কলকাতার স্বনামধন্য কম্পোজার সুদীপ্ত সাহার মাধ্যমেই পশ্চিমবঙ্গের প্রথম সারির যন্ত্রশিল্পীদের দিয়ে এ গানের কম্পোজিশন কলকাতায় সম্পন্ন করার সিদ্ধান্ত নিই। কলকাতার স্বনামধন্য সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার গৌতম বসু গানটির মিক্স মাস্টারিং করেছেন। বাবার জন্মদিনকেই উপলক্ষ করে গানটি প্রকাশিত হয় রঞ্জন চৌধুরীর ফেসবুক পেজ এবং ইউটিউব চ্যানেলে।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি