শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বিএনপির ভাবনা ক্ষমতা, দেশের মানুষ নয়: পানিসম্পদ উপমন্ত্রী

আপডেট : ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:৪৬

পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, ‘বিএনপির জন্মই হয়েছে অবৈধভাবে দেশের ক্ষমতা দখলের মাধ্যমে। এদেশের মানুষ নিয়ে বিএনপির কোনো ভাবনা নেই। তাদের মূল উদ্দেশ্যই হচ্ছে ক্ষমতায় যাওয়া। এজন্য তারা পেছনের পথ দিয়ে ক্ষমতায় আসতে চায়। এ কারণে, বারবার দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। তবে তারা সফল হয় নি, সফল হবেও না’।

রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জের কাঁচিকাটা  ইউনিয়নের বন্যা ও নদী ভাঙন কবলিতদের খাদ্য সহায়তা, নগদ অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জের কাঁচিকাটা ইউনিয়নের বন্যা ও নদী ভাঙন কবলিতদের খাদ্য সহায়তা, নগদ অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণী অনুষ্ঠানে পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে যখন উন্নয়নের শিখরে নিয়ে যাচ্ছেন, তখনই তারা মরিয়া হয়ে উঠেছে। ব্যালটের মাধ্যমে শেখ হাসিনাকে সরাতে পারবে না জেনে ষড়যন্ত্রকারীরা অন্য পথ বেছে নিয়েছে। পেছনের দরজা দিয়ে কীভাবে ক্ষমতায় আসা যায়, এজন্য তারা আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের সঙ্গে যুক্ত হয়ে আওয়ামীলীগ সরকারকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করতে চায়। কারণ, তারা জানে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে বিএনপি কোনো দিনও ক্ষমতায় আসতে পারবে না। তাই দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সবাইকে অতন্দ্র প্রহরীর মতো সতর্ক থাকতে হবে।

এনামুল হক শামীম বলেন, সংবিধান অনুযায়ী আগামী সংসদ নির্বাচন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নির্বাচন কমিশনের অধীনেই অনুষ্ঠিত হবে। বিএনপিকে যদি নির্বাচনে আসতে হয়, তাহলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নির্বাচন কমিশনের অধীনেই নির্বাচনে আসতে হবে। বিএনপি মূলত নির্বাচন চায় না, তারা জানে অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে কোনো দিন ক্ষমতায় আসতে পারবে না। বিএনপিকে এ দেশের জনগণ আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না। এ দেশের জনগণ একমাত্র জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই ঐক্যবদ্ধ। তাই আগামী নির্বাচনেও জনগণের রায় নিয়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা পঞ্চমবারের মতো ক্ষমতায় আসবেন।

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জের কাঁচিকাটা ইউনিয়নের বন্যা ও নদী ভাঙন কবলিতদের খাদ্য সহায়তা, নগদ অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণী অনুষ্ঠানে পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম

উপমন্ত্রী জানান, কাঁচিকাটা, উত্তর তারাবুনিয়া, দক্ষিণ তারবাবুনিয়া, চরভাগাকে নদী ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য ৫৬২ কোটি টাকার প্রকল্প একনেকে অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে। আর চরআত্রা, নওপাড়া, কুন্ডেরচর, কাঁচিকাটা, চরভাগা সহ এসব এলাকার উন্নয়নে একটি প্রকল্পের সমীক্ষা চলছে। এসব প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে আর কোনো সমস্যাই থাকবে না।

ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য জহির সিকদার, পানি উন্নয়ন বোর্ডের শরীয়তপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী এসএম আহসান হাবীব, সখিপুর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মানিক সরকার, কাঁচিকাটা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন দেওয়ান, আওয়ামী লীগ নেতা  কামরুল হাওলাদার, কাওসার মোল্লা, ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ককন হাওলাদার। 

ইত্তেফাক/এমএএম