সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

এবার জুরিখে আমন্ত্রিত ‘অন্যদিন...’

আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:২০

২০১২ সালে ‘শুনতে কি পাও’ সিনেমা দিয়ে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন তরুণ নির্মাতা কামার আহমাদ সাইমন। তার নির্মিত সেই সিনেমা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বেশ কিছু সম্মানজনক পুরস্কার জিতেছিল। সেই থেকে কামারকে নিয়ে দেশের দর্শক-সমালোচকদের প্রত্যাশাও অনেক।

সুইজারল্যান্ডের জুরিখ চলচ্চিত্র উৎসবে আমন্ত্রিত হয়েছে কামার আহমাদ সাইমনের নতুন ‘অন্যদিন…’। উৎসবের গোল্ডেন আই পুরস্কারের জন্য প্রতিযোগিতা করবে ১৪টি চলচ্চিত্র, যার অন্যতম বাংলাদেশের এই সিনেমা। এ উৎসবে উপস্থিত থাকতে সিনেমার নির্মাতা ও প্রযোজককে আমন্ত্রণ জানিয়েছে জুরিখ কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, বিশ্বের নামজাদা আরও দুটি উৎসব-‘উত্তর আমেরিকার চলচ্চিত্র উৎসব ক্যামডেন’ ও ‘ভ্যানকুভার’-এ আমন্ত্রিত হয়েছে সিনেমাটি। একই মাসে পরপর তিনটি উৎসবে আমন্ত্রণ কামারকে ফেলেছে এক মধুর যন্ত্রণায়। ভ্যানকুভার ও জুরিখ উৎসবের তারিখ কাছাকাছি হওয়ায় ভ্যানকুভারের খুব কাছে গিয়েও উৎসব কর্তৃপক্ষের আমন্ত্রণে সাড়া দিতে পারছেন না তিনি। তবে ক্যামডেন ও জুরিখে হাজির থাকবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

গত নভেম্বরে ওয়ার্ল্ড টপ-টেন ফেস্টিভাল ইডফার মূল আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় আমন্ত্রণ পেয়েছিলো কামার আহমাদ সাইমনের নতুন ছবি ‘অন্যদিন...’। বিশ্ব-অভিষেক হয়েছিলো দুনিয়ার সুন্দরতম থিয়েটার আমস্টারডামের পাথে তুসান্সকিতে। ইডফা’র ওয়েবসাইটে ‘অন্যদিন...’কে লেখা হয়েছিলো ‘ক্যালাইডোস্কোপিক ও ফিলসফিক্যাল’।

এর আগে মার্চে নিউ ইয়র্কের মিউজিয়াম অব মুভিং ইমেজ বা মমি’র ফার্স্ট লুক ফেস্টিভালে মাত্র ১৮টা নির্বাচিত ফিচারের মধ্যে প্রথম বাংলা ছবি ছিলো ‘অন্যদিন...’। উৎসব শুরু হয়েছিলো কানে ক্যামেরা দ্য’র বিজয়ী ক্রোয়েশিয়ান ‘মুরিনা’ দিয়ে আর শেষ লোকার্নোতে গ্র্যান্ড প্রি বিজয়ী পোলিশ ছবি ‘ব্যালকনি’।  মমি’র ওয়েবসাইটে ‘অন্যদিন...’-এর সেগমেন্টকে বর্ণনা করা হয়েছিলো ‘আর্টিস্টিক মাস্টারপিস’ হিসেবে।

২০১৪ সালে সানড্যান্স থেকে গ্রান্ট অ্যাওয়ার্ড জয় করা ‘অন্যদিন...’ ছবির গল্প নিয়ে এখনই মুখ খুলতে নারাজ কামার। শুধু বললেন, “হাইব্রিড ফিকশন ব্লেন্ডেড উইথ রিয়েলিটি’ বা ‘সত্য গল্প’ নিয়ে তৈরি হয়েছে ‘অন্যদিন…’।”

নির্মাতা জানিয়েছেন, শিগগিরই বাংলাদেশে সিনেমাটি মুক্তির বিষয়ে ভাবছেন তিনি।

ইত্তেফাক/বিএএফ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন