রোববার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মাদ্রিদ ডার্বি  জিতে আবারও শীর্ষে রিয়াল

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:২৯

একদিন আগেই রিয়াল মাদ্রিদকে পেছনে ফেলে লা লিগার শীর্ষে উঠেছিলো বার্সেলোনা। পরদিন মাদ্রিদ ডার্বি জিতে লা লিগায় টানা ৬ষ্ঠ জয় তুলে নিয়ে আবারও লিগ টেবিলের শীর্ষস্থানে ফিরলো রিয়াল মাদ্রিদ। আজ নগর প্রতিদ্বন্দী অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ঘরের মাঠ ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানোর হাই-ভোল্টেজ লড়াইয়ে ২-১ গোলের জয় তুলে নিয়েছে কার্লো আনচেলোত্তির শিষ্যরা।

মাঠের খেলার সঙ্গে আজ মাদ্রিদ ডার্বির পরিবেশ যেন আগুনের মতো গরম করে তুলেছিলো অ্যাটলেটিকোর সমর্থকরাও। তবে সেই আগুনের উত্তাপে পরে পুড়তে হয়েছে নিজেদেরই। ম্যাচ শুরুর আগেই স্টেডিয়ামের বাইরে একদল অ্যাটলেটিকো সমর্থন বর্ণবাদী গান গাইলেন রিয়ালের ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার ভিনিসিয়াস জুনিয়রকে উদ্দেশ্য করে।

ছবি- টুইটার

ম্যাচের মধ্যেও তার উদ্দেশ্যে এট-ওটা ছুঁড়ে মারাসহ বর্ণবাদী স্লোগানও শুরু করলেন তারা। তবে লাভের লাভ হলো না কিছুতেই। মাঠের খেলাতেই তাদের জবাবটা দিলেন ভিনিসিয়াস। ম্যাচে গোল তিনি পেতে পেতেও পাননি, পেয়ে যেতে পারতেন অবশ্য পোস্ট বাঁধা হয়ে না দাড়ালে। গোল না পেলেও  নাচের উদ্‌যাপন করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়া এই ব্রাজিলিয়ান খেলেছেন দুর্দান্ত। ম্যাচশেষে অ্যাটলেটিকো সমর্থকদের চুপ করিয়ে দলকে জিতিয়ে হাসিমুখেই মাঠ ছেড়েছেন এই ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার।  

ম্যাচের ১৮ মিনিটেই ব্রাজিলিয়ান তরুণ রদ্রিগোর গোলে এগিয়ে যায় রিয়াল। মিডফিল্ডার অরেলিয়েঁ চুয়ামেনির দারুণ এক লফটেড পাস অ্যাটলেটিকোর রক্ষণকে ফাঁকি দিয়ে চলে যায় রদ্রিগোর কাছে। অ্যাটলেটিকো গোলরক্ষক ইয়ান অবলাককে পরাস্ত করতে একটুও সমস্যা হয়নি রদ্রিগোর। সতীর্থ ভিনিসিয়াসকে নিয়ে সাম্বা নাচেই সেই গোলের উদ্‌যাপন করেন রদ্রিগো। আর তাতেই যেন অ্যাটলেটিকো সমর্থকরা জ্বলে-পুড়ে ছারখার হয়ে যায়। সেসময়ই উদযাপনরত ভিনিসিয়াস আর রদ্রিগোকে উদ্দেশ্য করে গ্যালারি থেকে ছুঁড়ে মারা হয় লাইটারসহ আরো কিছু জিনিস।

ছবি- টুইটার

প্রতিপক্ষের সমর্থকদের চোখ রাঙ্গানি উপেক্ষা করেই প্রথমার্ধ্বের ৩৬ মিনিটে লিড দ্বিগুণ করে রিয়াল। এবারের গোলদাতা আরেক লাতিন ফুটবল ফেদে ভালভার্দে। তবে অ্যাটলেটিকো সমর্থকদের বুকে আগুন জ্বলতে পারতো আরো বেশি, গোলটি যে হতে পারতো ভিনিসিয়াসের পায়েই। 

বাম পাশ থেকে অনেকটা দৌঁড়ে অ্যাটলেটিকোর রক্ষণ ভেঙে গোলমুখে জোরালো শট নিয়েছিলেন ভিনিসিয়াস। তবে ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গারের দুর্ভাগ্য যে তার নেওয়া শট প্রতিহত হয় পোস্টে লেগে। ফিরতি বল চলে যায় ডান প্রান্ত থেকে এগিয়ে ভালভের্দের পায়ে। ফাঁকা জালে বল জড়াতে একটুও ভুল করেননি এই উরুগুইয়ান।

ছবি- টুইটার

অ্যাটলেটিকো অবশ্য নিজেদের মাঠে রিয়ালকে থামানোর প্রাণপণ চেষ্টা করেছেন। ম্যাচের প্রথম থেকেই আক্রমণাত্মক খেলা উপহার দিয়ে কাপন ধরিয়েছে রিয়ালের রক্ষণে। ম্যাচের প্রথমার্ধ্বেই কয়েকটি দারুণ সুযোগ পেয়েও রিয়ালের জালের দেখা পায়নি অ্যাটলেটিকো। 

রিয়ালের দ্বিতীয় গোলের আগেই সমতা ফেরাতে পারতো ডিয়েগো সিমিওনের দল। তবে ফরাসি ফরোয়ার্ড অ্যান্থনিও গ্রিজম্যানের শট অল্পের জন্য জড়াইনি রিয়ালের জালে।

ছবি- টুইটার

ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধ্বে রিয়াল নিজেদের লিড ধরে রাখার চেষ্টাটা ঠিকই করে গেছে। অ্যাটলেটিকোর একের পর এক আক্রমণ ঠেকিয়ে দিয়েছে রিয়ালের রক্ষণ। তবে ৮৩ মিনিটে কর্নার থেকে মারিও হেরমোসা গোল করে স্বাগতিকদের হারের ব্যবধান কমিয়েছেন। তবে ম্যাচশেষে ২-১ গোলের হারে মাথা নিচু করেই মাঠ ছাড়তে হয়েছে অ্যাটলেটিকোর ফুটবলারদের। 

এই জয়ে লা লিগায় টানা ষষ্ঠ জয় তুলে নিলো রিয়াল। ৬ ম্যাচে পূর্ণ ১৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে উঠে এলো আনচেলোত্তির শিষ্যরা। তাদের সমান ৬ ম্যাচে ৫ জয় আর ১ ড্রইয়ে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে নেম গেলো চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনা। অন্যদিকে, ৬ ম্যাচে ৩ জয়, ১ ড্র আর ২ হারে ১০ পয়েন্ট নিয়ে অ্যাটলেটিকো রয়েছে টেবিলের সাত নাম্বারে।

ইত্তেফাক/এসএস