রোববার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

পরিবার সম্প্রসারণে দম্পতিদের মধ্যে জাগাচ্ছে আশা

গর্ভধারণ ও সন্তান জন্মদানে মালয়েশিয়ায় উন্নত চিকিৎসাসেবা

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৮:৫৫

গর্ভধারণ সমস্যা ও অধিক বয়সে সন্তান নিতে আগ্রহীদেরকে মালয়েশিয়া স্বাস্থ্যসেবা আশার আলো দেখায় । বিশ্বের যেকোনো দেশের তুলনায় মালয়েশিয়ার গর্ভধারণ সাফল্যের হার অনেক বেশি। দেশটিতে প্রায় ৮৩% গর্ভধারণের সফলতা এসেছে শুধু সিঙ্গেল ইউপ্লয়েড ব্লাস্টোসিস্ট স্থানান্তরের ফলে এবং ৬৮% এরও বেশি সফলতার হার  এসেছে ৪১ বছরের অধিক বয়সী মহিলাদের দেহে ভ্রূণ স্থানান্তরে মাধ্যমে, এক্ষেত্রে প্রি ইমপ্লান্টেশন জেনেটিক টেস্টিং (পিজিটি) অন্তর্ভুক্ত। প্রজনন চিকিৎসার ক্ষেত্রে মালয়েশিয়ায় এরকম  অসাধারণ সফলতার কারণ হল, সবধরনের আধুনিক সুযোগ সুবিধা এবং দক্ষ চিকিৎসক দ্বারা পরিচালিত স্বাস্থসেবা।

মালয়েশিয়া হেলথকেয়ার ট্রাভেল কাউন্সিলের (এমএইচটিসি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ দাউদ মোহাম্মদ আরিফ বলেন, এশিয়ার ফার্টিলিটি গন্তব্য হিসাবে মালয়েশিয়া হচ্ছে, দক্ষ চিকিৎসকদের এমন জায়গা যেখানে রয়েছে উন্নত প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত চিকিৎসক, ভ্রূণ বিশেষজ্ঞ, জেনেটেসিস্ট এবং অত্যাধুনিক প্রযুক্তি যা বিশ্বের যেকোনো উন্নতদেশকে চ্যালেঞ্জ করার ক্ষমতা রাখে।

ইতিমধ্যে মালয়েশিয়ার প্রজনন  বিষয়ক স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রগুলো মাইলফলক  অগ্রযাত্রা সম্পন্ন করেছে। তার মধ্যে অন্যতম একটি কেন্দ্র হল, টিএমসি ফার্টিলিটি অ্যান্ড উইমেনস স্পেশালিস্ট সেন্টার (টিএমসি) যাহা ফার্টিলিটি অ্যান্ড উইমেন্স স্পেশালিষ্ট সেন্টার (আরটিএসি) দ্বারা সনদপ্রাপ্ত। সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটি ফার্টিলিটি জিনকোড নামে জেনেটিক স্ক্রিনিং চালু করেছে । 

এই প্রতিষ্ঠানের  স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ এবং প্রসূতি কনসালটেন্ট ডা. চং কুও রেন স্ক্রিং সম্পর্কে জানান, এই পদ্ধতির মাধ্যমে প্রাথমিকভাবে গর্ভধারণ সমস্যা চিহ্নিতকরণ এবং জেনেটিক মার্কার যাচাই করে সঠিক চিকিৎসায় সর্বোত্তম ফলাফল পাওয়া সম্ভব। এবং সেইসাথে প্রায় ১০,০০০টি বিভিন্ন জেনেটিক বিষয়ের উপর কাজ করে, যাতে  এই সমস্যা  পরবর্তী প্রজন্মের মধ্যে না ছড়াতে পারে।

ডাঃ লিম লেই জুন, মেডিকেল ডিরেক্টর এবং ফার্টিলিটি বিশেষজ্ঞ, সানফার্ট ইন্টারন্যাশনাল ফার্টিলিটি সেন্টার;  ডাঃ অ্যাশলে চুং সু বি, কনসালট্যান্ট প্রসূতি বিশেষজ্ঞ, গাইনোকোলজিস্ট এবং ফার্টিলিটি বিশেষজ্ঞ, সানওয়ে ফার্টিলিটি সেন্টার;  ডাঃ নাবদীপ সিং পান্নু, মেডিকেল ডিরেক্টর, টিএমসি ফার্টিলিটি সেন্টার; অ্যাডেলি লিম, প্রধান ভ্রুণ বিশেষজ্ঞ, আলফা ফার্টিলিটি সেন্টার।

আর একটি প্রতিষ্ঠান হল, আলফা আইভিএফ ও উইমেনস স্পেসালিষ্টস (আলফা), যারা এশিয়ার প্রথম পিইজো-আইসিএসআই (ইন্ট্রাসাইটোপ্লাজমিক স্পার্ম ইনজেকশন) পদ্ধতি উন্মোচন করেছে, এটি একটি উন্নত আইসিএসআই কৌশল যা প্রচলিত আইসিএসআই পদ্ধতির তুলনায় ডিমের ক্ষতি কমিয়ে দেয়

আলফার ভ্রূণ বিশেষজ্ঞ, এমিলি লিম বলেন, এখন পর্যন্ত পিইজো-আইসিএসআই পদ্ধতিতে অন্যান্য পদ্ধতির চেয়ে ডিম্বাণুর ক্ষয়ক্ষতির হার সবচেয়ে কম। এর মাধ্যমে ডিমটিকে সর্বোচ্চ সুরক্ষা দেয়া হয় এবং ডিম্বাণু নিষিক্তকরণের হারও এক্ষেত্রে ৮৯%, যার ফলে গর্ভধারণের সম্ভাবনা আরও বেড়ে যায়।

সানওয়ে ফার্টিলিটি সেন্টার (সানওয়ে) নামে আর একটি প্রতিষ্ঠান বিশ্বাস করে যে, এই বিষয়ে প্রতিটি দম্পতিকে  সঠিক সহায়তার নিশ্চিতা জরুরি। প্রদত্ত চিকিত্সায় প্রতিটি দম্পতিকে সঠিক সহায়তা পাওয়ার গুরুত্ব তুলে ধরে।  তাদের একটি দক্ষ টিম রয়েছে। এ টিমে অভিজ্ঞ ভ্রূণ বিশেষজ্ঞ, জিনতত্ত্ববিধ এবং বিশিষ্ট কনসালটেন্ট রয়েছেন।

সানওয়ের একজন কনসালট্যান্ট এবং প্রসূতিরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. হুই মেই লিন বলেন, আমি মানুষের স্পর্শে বিশ্বাস করি। যে কোনো রোগীর অভিজ্ঞতাকে সফল করতে আমাদের সকলের ভূমিকা থাকে। চিকিৎসক, জিনতত্ত্ববিদ, ভ্রূণ বিশেষজ্ঞরা প্রতিটি দম্পতির কাছ থেকে  তথ্য সংগ্রহের মাধ্যমে নির্ভুলভাবে জেনেটিক রোগ নিরূপন করেন এবং সে অনুযায়ী সঠিক চিকিৎসা দিয়ে থাকেন। এছাড়া ও রোগীদের মানসিক ও আবেগজনিত সুস্থতা বিষয়ক সর্বোত্তম পরামর্শ দেওয়া হয়।

একই রকমভাবে, সানফার্ট ইন্টারন্যাশনাল ফার্টিলিটি সেন্টারে প্রযুক্তি এবং বিশেষজ্ঞদের চেষ্টার মাধ্যমে একটি সুন্দর ভারসাম্য তৈরি করে রোগীদেরকে সঠিক চিকিৎসার  দেয়া হয় ।

সানফার্টের মেডিকেল ডিরেক্টর ফার্টিলিটি বিশেষজ্ঞ ডা. লিম লেই জুন জানান,  আইভিএফ এমন একটি প্রদ্ধতি যাকে আমরা প্রযুক্তি এবং মানুষের মধ্যে বিবাহ হিসাবে দেখতে পারি। গ্রহণযোগ্য প্রযুক্তিকে সঠিকভাবে ব্যবহার করে সঠিক রোগ নির্ণয় এবং সঠিক চিকিৎসা নিশ্চিত করতে হবে।

মালয়েশিয়ার ফার্টিলিটি সেন্টারগুলো সেই দেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দ্বারা পরিচালিত হয় এবং যেকোনো বিষয়ের যথাযথ অভিযোগ করারও ব্যবস্থা রয়েছে। তাই যারা মালয়েশিয়াতে স্বাস্থ্যসেবা নিতে ইচ্ছুক তাদের জন্য দেশটি নিরাপদ এবং বিশ্বমানের উন্নত চিকিৎসা দিতে সদা প্রস্তুত।

মালয়েশিয়ার গর্ভধারণ সেবা সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য এ লিংকে ক্লিক করুন https://malaysiahealthcare.org/malaysia-healthcare-brings-hope-with-world-class-fertility-expertise/

মালয়েশিয়া হেলথকেয়ার ও তাদের সেবাসমূহ সম্পর্কে আরো জানতে এই লিংকে ক্লিক করুন: https://malaysiahealthcare.org/.

ইত্তেফাক/জেডএইচডি