বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

জো বাইডেনকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালেন শেখ হাসিনা

আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৫৩

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে বাংলাদেশে সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্থানীয় সময় বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে নিউ ইয়র্কে উপস্থিত রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানদের সম্মানে দেওয়া অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানে বাইডেনকে এ আমন্ত্রণ জানান প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেন এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।

'আমেরিকান মিউজিয়াম অব ন্যাচারাল হিস্ট্রিতে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে জো বাইডেন ও শেখ হাসিনার 'আলাপও হয়েছে' বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। বুধবার রাতে নিউ ইয়র্কের অভিজাত হোটেল লোট প্যালেসে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেখা হয়েছে, আলাপ হয়েছে, ছবি হয়েছে দুই জনই, মিস্টার অ্যান্ড মিসেস বাইডেন, ওনারা ওনাকে (শেখ হাসিনা) সাদরে স্বাগত জানান। তারপরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ করেন।

তাৎক্ষণিকভাবে আলাপের বিস্তারিত না জানালেও পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, আলাপের পরে ওনার (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) কাছে জিজ্ঞেস করেছি; উনি বলেছেন যে 'হ্যাঁ, আমি আলাপ করেছি। তাকে আমার দেশে আসার জন্য বলেছি এবং তিনি সেগুলো শুনেছেন।"

ড. মোমেন আরো জানান, প্রেসিডেন্ট বাইডেন জানতে চেয়েছিলেন জাতিসংঘের অধিবেশনে এটাই শেখ হাসিনার প্রথম অংশগ্রহণ কি না। জবাবে শেখ হাসিনা তাকে জানান, এবার নিয়ে তার ১৮ বার হলো।

এখানে উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সদর দপ্তরে শান্তিরক্ষা কার্যক্রম নিয়ে এক উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশে বসেছিলেন তত্কালীন ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এদিকে, জাতিসংঘ অধিবেশনের ফাঁকে ফাঁকে বিভিন্ন উচ্চপর্যায়ের বৈঠক আর কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। বুধবার জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের উদ্যোগে গঠিত 'চ্যাম্পিয়নস গ্রুপ অব গ্লোবাল ক্রাইসিস রেসপন্স' (জিসিআরজি) আয়োজিত গোলটেবিল বৈঠকেও অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরুর পর রাশিয়া আর পশ্চিমা দেশগুলোর পাল্টাপাল্টি নিষেধাজ্ঞা দেশে দেশে মানুষকে কতটা কষ্টে ফেলেছে, সেই চিত্র তুলে ধরে পরিত্রাণের জন্য পাঁচ দফা প্রস্তাব তিনি তুলে ধরেন।

এছাড়া টেকসই আবাসনের ওপর আয়োজিত ইউএন-হ্যাবিটেটের উচ্চপর্যায়ের এক বৈঠকেও অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী। কেউ গৃহহীন থাকবে না, এমন একটি বিশ্ব গড়তে সেখানে রাষ্ট্রনেতাদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনে শেখ হাসিনা বক্তৃতা করবেন আজ ২৩ সেপ্টেম্বর। এ বিশ্বসভায় এবারও তিনি বাংলাদেশের মানুষের বক্তব্য তুলে ধরবেন বাংলায়।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্বেগ: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্থানীয় সময় বুধবার কোভিড-১৯ মহামারি এবং রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের পরিপ্রেক্ষিতে উন্নয়নশীল দেশগুলোর খাদ্য ও জ্বালানিসংকটের পাশাপাশি আর্থিক ও বাণিজ্যিক চ্যালেঞ্জ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) নির্বাহী চেয়ারম্যান অধ্যাপক ক্লাউস শোয়াব তার অবস্থানস্থল হোটেলে তার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে প্রধানমন্ত্রী এই উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) ৭৭তম অধিবেশনে অংশগ্রহণের ফাঁকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম সাংবাদিকদের প্রধানমন্ত্রীর বুধবারের কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করেন।

পদ্মা সেতুর ওপর আলোকচিত্র প্রদর্শনী পরিদর্শন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বুধবার জাতিসংঘ সদর দপ্তরে পদ্মা সেতুর ওপর আলোকচিত্র প্রদর্শনী পরিদর্শন করেন। প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেসসচিব কে এম সাখাওয়াত মুন সাংবাদিকদের জানান, বিকেলে জাতিসংঘ সদর দপ্তরের লেভেল-১-এর আঁকাবাঁকা দেওয়ালে আয়োজিত প্রদর্শনী পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রী। জাতিসংঘের ইকোসক প্রেসিডেন্ট লাচেজারা স্টোভাসহ কয়েক জন বিদেশি অতিথি এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি