সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

প্রথমদিন কেমন গেলো ‘অপারেশন সুন্দরবন’-‘বিউটি সার্কাস

আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২১:৫১

‘পরান’ ও ‘হাওয়া’ সিনেমার সুবাতাসের মধ্যেই দেশে মুক্তি পেয়েছে বেশ কয়েকটি সিনেমা। আজ শুক্রবার দেশের প্রায় অর্ধশত হলে মুক্তি পেয়েছে দীপংকর দীপনের ‘অপারেশন সুন্দরবন’ ও মাহমুদ দিদারের ‘বিউটি সার্কাস’। রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্সেও চলছে ছবি দুটি।

শুরু থেকেই দুই ছবির তারকারা দুটি ছবিই দেখার আহ্বান জানিয়ে আসছেন। প্রচার-প্রচারণার কমতিও রাখেনি। হলে দর্শক আনার আপ্রাণ দেষ্টা চালিয়ে গেছেন দুই ছবির টিম।

ছবি দুটির বেলায় সকালের শোগুলোও ক্রমাগত হাউজফুল হয়েছে বলে জানিয়েছে স্টার সিনেপ্লেক্সের মিডিয়া ও মার্কেটিং বিভাগের সিনিয়র ম্যানেজার মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ।

এদিন সন্ধ্যায় স্টার সিনেপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায়, দর্শদের উপচে পড়া ভিড়। প্রত্যেকটি শো ছিলো হাউসফুল। সন্ধ্যায় হল পরিদর্শনে আসেন ‘অপারেশন সুন্দরবন’ টিম। হল ভর্তি দর্শক দেখে সন্ত্যেস প্রকাশ করেছেন সিনেমার কলা কুশলীরা।

নুসরাত ফারিয়া

এসময় নুসরাত ফারিয়া ইত্তেফাক অনলাইনকে বলেন, ‘শুরুর দিকে অনেক টেনশনে ছিলাম। কিন্তু আজ সেটা আর নেই। কারণ এতো এতো দর্শক দেখে বুকটা ভরে গেছে। সকাল থেকে যতোগুলো হল ঘুরে দেখেছি সবগুলো হল কমবেশি হাউসফুল ছিলো। আশাকরি কাল থেকে আরও দর্শক বাড়বে।’ 

‘অপারেশন সুন্দরবন’-এর পরিচালক দীপংকর দীপন বলেন, প্রথমদিন দর্শকদের এমন সাড়া দেখে বুকটা ভরে গিয়েছে। মনে হচ্ছে, ৪ বছর যে কষ্টটা করেছে সেটা স্বার্থক হতে চলেছে।’

মুক্তির প্রথম শো’তেই রাজধানীর বসুন্ধরা শপিংয়ের স্টার সিনেপ্লেক্সে হাজির হন বিউটি তথা জয়া আহসান। সঙ্গে ছিলেন নায়ক রঙলাল চরিত্রের এবিএম সুমনসহ অন্যরা।

জয়া আহসান। ছবি: সংগৃহীত

এসময় জয় বলেন, ‘ছবিটি দেখার সময় নিজের মনেই প্রশ্ন জেগেছে, এমন ঝুঁকিপূর্ণ দৃশ্যে আমরা শুটিং করেছিলাম! যখন কাজটি করেছি, তখন আসলে এসব নিয়ে ভাবিনি। কারণ, ডুবে ছিলাম চরিত্রের ভেতর। ছবিটি আজ দেখার পর সেসব স্মৃতি মনে পড়লো। অবাকও হলাম নিজেকে নিয়ে। ছবিটি বড় পর্দায় দেখার পর এবং দর্শকদের উচ্ছ্বাস পেয়ে একটা কথাই মনে হলো, আমাদের কষ্ট সার্থক হয়েছে।’

ইত্তেফাক/বিএএফ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন