বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ভাসমান যৌনকর্মীদের মদতে জমজমাট মাদক ব্যবসা

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৫৯

কালিয়াকৈরে ভাসমান যৌনকর্মীদের দৌরাত্ম্য আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে। বিভিন্ন আবাসিক হোটেল ও বিনোদন পার্কগুলোতেও রমরমা ব্যবসা চলছে বলে অভিযোগ রয়েছে। অন্যদিকে উপজেলার সফিপুর এলাকায় বাসাভাড়া নিয়ে মিনি পতিতালয় পরিচালিত হচ্ছে বলে উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় আলোচনা হয়েছে।

বিশেষ করে সন্ধ্যার পর থেকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের কালিয়াকৈর বাইপাস স্টেশনের পশ্চিম পাশ থেকে শ্রীফলতলী  বাইপাশ  বাস স্টেশন এলাকায় মহাসড়কের পাশে, কালিয়াকৈর ট্রাক স্টেশন ও  খাড়াজোড়া  রজনী সিনেমা হল এলাকায়, চন্দ্রা ত্রীমোড় বাস স্টেশন, চন্দ্রা ফ্লাইওভারের দুই পাশে, চন্দ্রা সোহাগপল্লি রোডের প্রবেশ মুখের আশপাশ, চন্দ্রা কাজলী  সিএনজি  পাম্প  ও  মৌচাক ইউনিয়নের তেলিরচালা নামক স্থানে মোহনা সিনেমা হলের আশপাশ এলাকায় ভাসমান যৌনকর্মীদের বিচরণ লক্ষ করা যায়।

জানা গেছে, এসব ভাসমান পতিতার মাধ্যমে  স্থানীয়  মাদক ব্যবসায়ীরা  গোপনে গড়ে তুলেছে সিন্ডিকেট। তাদের মাধ্যমে অবাধে হচ্ছে মাদক পাচার। তাছাড়া এসব  ভাসমান পতিতার সঙ্গে অপরাধীদের  রয়েছে গভীর সখ্য। ব্যবসার আড়ালে এসব পতিতা মাদকদ্রব্য বিক্রিসহ ভাসমান অপরাধীদের গোপনে তথ্য দিয়ে সহায়তা করে বলে তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়।  মাদকদ্রব্য সহজলভ্য হওয়ায় উঠতি বয়সি কিশোর-তরুণরা মাদকে আসক্ত হয়ে পড়ছে।

অনেক অভিভাবক জানান, সন্তানদের মাদকের নেশামুক্ত করার জন্য নিরাময়কেন্দ্রে নিয়ে যান। সেখানে চিকিত্সা করার পর সুস্থ  হয়ে বাড়ি ফিরে আসে। কিন্তু মাদক সহজলভ্য হওয়ায় কিছু দিন পর পুনরায় নেশার জগতে ফিরে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আকবর আলী খান বলেন, মাদকের সঙ্গে কোনো আপস নেই। তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইত্তেফাক/ইআ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন