শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

আজ শুভ মহালয়া

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:১৪

আবার এলো দেবীপক্ষ। দক্ষিণায়নের দিন। কৈলাশ শিখর থেকে তার আগমনী বার্তায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঘরে ঘরে উৎসবের আমেজ। হিন্দু ধর্ম বিশ্বাসে, আজ দশভূজা শক্তিরূপে মা দুর্গা মণ্ডপে মণ্ডপে অধিষ্ঠান করবেন। আজ শেফালীঝরা শারদ প্রভাতে জলদকণ্ঠে চণ্ডিপাঠ আর পিতৃপক্ষের তর্পণের সমাপন ঘটবে।

শারদীয় দুর্গাপূজার একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ হলো এই মহালয়া। দুর্গোৎসবের তিন পর্ব যথা: মহালয়া, বোধন আর সন্ধিপূজা। মহালয়ায় পিতৃপক্ষ সাঙ্গ করে দেবীপক্ষের দিকে যাত্রা হয় শুরু। আগামী ১ অক্টোবর সায়ংকালে অকাল বোধনে খুলে যাবে মা দুর্গার শান্ত-স্নিগ্ধ অতল গভীর আয়ত চোখের পলক। দূর কৈলাশ ছেড়ে দেবী পিতৃগৃহে গজে আসবেন। আগামী ৫ অক্টোবর বুধবার বিজয়া দশমী। দেবী দুর্গা তার পুত্র-কন্যাসহ কৈলাশে ফিরবেন নৌকায় চেপে।

বাংলাদেশের ব্যাপক আয়োজনের মধ্য দিয়ে এই উৎসব পালন করা হয় এবং সরকারিভাবে এক দিনের ছুটি ঘোষণা থাকে। বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজাকে ঘিরে রাজধানীসহ সারা দেশে ইতিমধ্যে উৎসবের আমেজ শুরু হয়েছে। রাজধানীর পূজামণ্ডপগুলোতে প্রতিমা রং করাসহ মণ্ডপ তৈরি ও আলোকসজ্জা থেকে শুরু করে নানা আয়োজন সম্পন্নের কাজ চলছে। গত বছরের চেয়ে এবার দেশে ৫০টির বেশি মণ্ডপে পূজা উদযাপন হবে। এ সংখ্যা দাঁড়াবে ৩২ হাজার ১৬৮টি। ঢাকা মহানগরে পূজার সংখ্যা ২৪১টি, যা গত বছর থেকে ছয়টি বেশি।

গতকাল শনিবার ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির মিলনায়তনে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের এক সংবাদ সম্মেলনে পরিষদের সভাপতি জে এল ভৌমিক বলেন, গত বছরের পূজার সময়ে হামলাগুলোর কোনো বিচার হয়নি। আমাদের দাবি, এসব ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিচারের আওতায় আনা হোক। সব মন্দিরের সুরক্ষা দেওয়া খুব কঠিন। তাই আমরা এবার প্রত্যেক মন্দিরে স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করছি, যারা রাতেও পাহারা দেবেন।

ইত্তেফাক/ইআ