বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

অবশেষে নিজ বাড়ির পথে সানজিদা-মারিয়ারা

আপডেট : ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:০৯

দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট জিতে দেশে ফিরে একের পর এক সংবর্ধনা আর শুভেচ্ছায় সিক্ত হচ্ছেন সাবিনা-সানজিদারা। তবে এতো এতো সংবর্ধনার ভিড়েও তাদের মন পড়ে রয়েছে তাদের নিজ বাড়িতে, পরিবারের কাছে। অবশেষে সাফজয় করে দেশে ফেরার আটদিন পর আজ সবাই নিজেদের বাড়ির পথ ধরেছেন। বাংলার বাঘিনীদের ব অরণ করে নিতে যার যার এলাকায় জোর প্রস্তুতিও দেখা গেছে।

বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের ৮জন ফুটবলার উঠে এসেছে ময়মনসিংহের কলসিন্দুর থেকে। সানজিদা, মারিয়া, শামসুন্নাহাররা একসঙ্গেই আজ ফিরছেন নিজেদের আপন মাটিতে। যাত্রাপথে এই ফুটবলারদের দুই ধাপে সংবর্ধনা দেয়া হবে ভালুকা এবং ত্রিশালে। ময়মনসিংহ পৌঁছানোর পর জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে তাদের সংবর্ধনা দেয়া হবে। এরপর শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সেখানে আরও একটি সংবর্ধনা শেষে ফুটবলাররা যাবেন কলসিন্দুরের নিজ বাড়িতে অপেক্ষারত আপনজনদের কাছে।

দলের অন্য সবাই বাদে শুধু পার্বত্য অঞ্চলের পাঁচ ফুটবলার ঋতুপর্ণা চাকমা, রুপনা চাকমা, মনিকা চাকমা, আনাই মোগিনী আর আনুচিং মোগিনী বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ফিরেছেন নিজ এলাকায়।  এছাড়া ডিফেন্ডার মাসুরা পারভীনও গতকাল রাতেই ফিরেছেন নিজ বাড়ি সাতক্ষীরায়। অন্যসবাই বাফুফে থেকে ছুটি পেয়ে আজই ফিরছেন নিজেদের আপন মানুষের কাছে। বাফুফের তত্ত্বাবধানে সবার যাতায়াত ব্যবস্থাও নিশ্চিত করা হয়েছে।

এর আগে বুধবার পাঁচ পাহাড়ি কন্যা নিজ জেলা রাঙ্গামাটিতে ফিরলে তাদেরকে ব্যতিক্রমভাবে বরণ করে নিয়েছে এলাকাবাসী। দক্ষিন এশিয়ার মঞ্চে লাল সবুজের আলো ছড়ানো কন্যাদের আলোর অভাব দূর করতে দুর্গম পাহাড়ি পথে পথে জ্বালানো হয়েছিলো হাজারো মশাল। এছাড়া বারি ফেরার আগে বাড়ি ফেরার আগে চট্টগ্রামের দৈনিক আজাদীর পক্ষ থেকে পাঁচ নারী ফুটবলারের প্রত্যেককে দেওয়া হয়েছে এক লাখ করে টাকা।

 

ইত্তেফাক/এসএস

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন