শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বুবলীর পর শাকিবও ঘোষণা দিলেন শেহজাদ তাদের সন্তান

আপডেট : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:৪৩

ঢাকাই সিনেমার নায়িকা শবনম বুবলী ‘মা হয়েছেন’ গত আড়াই বছর যাবত সবার মুখে মুখে থাকলেও বুবলী নিজে স্বীকার করেননি। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে তিনি ঘটা করেই প্রচার করতে চাইছেন তার মা হওয়ার বিষয়টি। অপেক্ষার পর আজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলে ফেললেন পুত্রসন্তানের মা হয়েছেন তিনি। সঙ্গে বাবা হয়েছেন বাংলা সিনেমার সুপারস্টার শাকিব খান। 

এদিকে, শাকিব ভক্তরা বিমুখ হলেন না। তাদেরও একই সুসংবাদ দিলেন শাকিব খান নিজেই। তিনি তার ফেসবুক পেজে এই সুসংবাদটি দেন। তিনি লেখেন...  

 

‘আমরা চেয়েছিলাম একটি শুভ দিনক্ষণ দেখে আমাদের সন্তানকে সবার সম্মুখে আনতে। তবে আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন। সেই সুখবরটি জানানোর জন্য আর বেশিদিন অপেক্ষা করতে হয়নি।’

আরও লেখেন- ‘শেহজাদ খান বীর আমার এবং বুবলীর সন্তান, আমাদের ছোট্ট রাজপুত্র। আমার সন্তান আমার গর্ব, আমার শক্তি। আপনাদের সবার কাছে আমাদের সন্তানের জন্য দোয়া কামনা করছি।’ 

এদিকে, জানা গেছে, বুবলী মা হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের লং আইল্যান্ড জ্যুইশ মেডিকেল হাসপাতালে। ২০২০ সালের ২১ মার্চ তিনি পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। সন্তানের নাম রাখা হয় শেহজাদ খান বীর।

পারিবারিক সূত্রটি বলছে, ২০২০ সালের জানুয়ারিতে এমিরেটস এয়ারলাইনসের একটি উড়োজাহাজে চড়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান বুবলী। ৯ মাসের আড়াল ভেঙে তিনি সবার সামনে আসেন। এরপর ব্যস্ত হয়ে পড়েন কাজকর্মে। আড়ালে যাওয়ার আগে বুবলী ‘বীর’ ও ‘ক্যাসিনো’ ছবির শুটিং করেন।

২৭ সেপ্টেম্বর হঠাৎ করেই বেবি বাম্পের ছবি প্রকাশ করেন বুবলী। প্রকাশের পর থেকে সোশ্যাল মিডিয়াতেও আলোচনা রয়েছে এই ঘটনা। সবাই কৌতুহলী হয়ে জানতে চাইছেন বুবলীর বাচ্চা সম্পর্কে। কবে মা হয়েছেন নায়িকা, কে সেই সন্তানের বাবা? এনিয়ে মুখ না খুললেও ইঙ্গিত দেন বুবলী।

২৭ সেপ্টেম্বর সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে বলতে গেলে আমার আরও কয়েকদিন সময় প্রয়োজন।আমি এই মুহূর্তে বিষয়টি নিয়ে কিছু বলতে চাই না। আমি কিছুদিন সময় চাই। তবে এটুকু বলব, আমি মুসলিম, আমাদের যা কিছু হয়েছে সামাজিকভাবে...। 

আজ যেহেতু অন্য একটি সিনেমার শুটিংয়ে আছি, তাই তাদের বিরক্ত করতে চাচ্ছি না। যেহেতু বিষয়টা সেনসিটিভ, আমি কয়েকদিনের মধ্যে সব কিছু আপনাদের জানাবো! আমার প্রফেশনাল ও ব্যক্তিগত জীবন দু’টি ভিন্ন বিষয়। তাই আপাতত এ নিয়ে কোনো বিভ্রান্তি না ছড়ানোর অনুরোধ করছি। দ্রুতই একটি সংবাদ সম্মেলন ডেকে এ বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত তুলে ধরবো।

ইত্তেফাক/এইচএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন