রোববার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

খুলনায় ছোট ভাইয়ের দায়ের কোপে বিচ্ছিন্ন বড় ভাইয়ের হাত

আপডেট : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৭:৫৬

খুলনায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছোট ভাই শাকিল হোসেন (২৫) ধারালো দা দিয়ে আপন বড় ভাই শাহাদাত হোসেনের (৩০) বাম হাত কেটে শরীর থেকে বিচ্ছিন্নের ঘটনা ঘটেছে। 

শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকালে কয়রা উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়নের মেঘারাইট গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শাহাদাত ও শাকিল মেঘারাইট গ্রামের সোহরাব মিস্ত্রির ছেলে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় শাহাদাতকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ছোট ভাই শাকিলকে গ্রেফতার করেছে।

এলাকাবাসী ও কয়রা থানা পুলিশ জানায়, মেঘারাইট গ্রামের শাহাদাত ও শাকিল পেশায় মাছ ব্যবসায়ী। মাছ বিক্রির টাকা ভাগাভাগি নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে দ্বন্দ্ব ছিল। এছাড়া শাকিলকে কেন বিয়ে দেওয়া হচ্ছে না- তা নিয়েও বড় ভাই শাহাদাতের প্রতি ক্ষুব্ধ ছিল শাকিল। শুক্রবার সকালে এ নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে ছোট ভাই শাকিল ধারালো দা দিয়ে বড় ভাইয়ের বাম হাতে কোপ মারে। এতে তার হাত শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এ সময় স্থানীয়রা আহত শাহাদাতকে উদ্ধার করে কয়রা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে তাকে সেখান থেকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

কয়রা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবিএম দোহা বলেন, স্থানীয়রা জানিয়েছে, বড় ভাই শাহাদাতের সঙ্গে ছোট ভাই শাকিলের মাছ বিক্রির টাকা ভাগাভাগি নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিল। এছাড়া শাকিলকে কেন বিয়ে দেওয়া হচ্ছে না- তা নিয়েও সে বড় ভাইয়ের প্রতি ক্ষুব্ধ ছিল। এ নিয়ে সকালে তর্ক-বিতর্কের জের ধরে ক্ষুব্ধ শাকিল ধারালো দা দিয়ে কোপ দিয়ে বড় ভাই শাহাদাতের বাম হাত শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এলাকাবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে শাকিলকে গ্রেফতার করা হয়। তবে গ্রেফতারের পর থেকেই সে চুপ রয়েছে। মুখ খোলার পর জানা যাবে, কেন সে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে তার ভাইয়ের হাত বিচ্ছিন্ন করেছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

ইত্তেফাক/এমএএম