শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বাংলাদেশে নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন চায় যুক্তরাষ্ট্র 

আপডেট : ০৯ অক্টোবর ২০২২, ১৫:৫৭

বাংলাদেশে মানবাধিকার উন্নয়নের গুরুত্ব তুলে ধরেছেন মার্কিন উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়েন্ডি আর শেরম্যান। সেইসঙ্গে তিনি বাংলাদেশে অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের কথা বলেছেন।  

শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে বৈঠকে এ কথা বলেন তিনি। 

ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক কূটনৈতিক সম্পর্কের কথা তুলে ধরে উভয় দেশের প্রতিনিধি বৈঠকে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিকে তিন বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীর মৃত্যুতে শেরম্যান শোক প্রকাশ করেন। সন্ত্রাসবাদ ও সহিংস চরমপন্থার বিরুদ্ধে বাংলাদেশের সঙ্গে অব্যাহত সহযোগিতার আশ্বাস দেন তিনি।

বাংলাদেশে কোভিড ১৯ টিকাদান কর্মসূচি ও মহামারী মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপের প্রশংসা করেন তিনি। জলবায়ু পরিবর্তনেও বাংলাদেশের নেতৃত্বের প্রশংসা করেন।

এছাড়া বাংলাদেশের শ্রম খাতে অগ্রগতির কথা উল্লেখ করে মার্কিন উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য বাড়াতে দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতার ওপর জোর দেন। 

অপরদিকে বৈঠকে মার্কিন প্রতিনিধির সঙ্গে আলাপে র‌্যাব ও এর সাবেক-বর্তমান কর্মকর্তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার আহ্বান জানান শাহরিয়ার আলম। 

মহামারী মোকাবিলায় প্রায় ৮ কোটি ৮০ লাখ কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন ডোজ সরবরাহ করে বাংলাদেশকে সহায়তা দেওয়ায় যুক্তরাষ্ট্রকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মানবিক সহায়তা এবং তাদের প্রত্যাবাসনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রচেষ্টার প্রশংসা করেন তিনি।

জলবায়ু পরিবর্তন ও অভিবাসন বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার ব্যাপারে বাংলাদেশ সরকারের ইচ্ছা ব্যক্ত করেন প্রতিমন্ত্রী।

বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি রাশেদ চৌধুরীকে বাংলাদেশে অবিলম্বে ফেরত পাঠাতে মার্কিন সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, বিষয়টি বাংলাদেশের জনগণ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।  উভয় দেশের মধ্যে খুব দ্রুত বহিঃসমর্পণ চুক্তি সম্পাদনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরে বৈঠকের পর ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাসে শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে সাক্ষাত করেন মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিশেষ সহকারী এবং হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক জ্যেষ্ঠ পরিচালক রিয়ার অ্যাডমিরাল ইলিন লবেশার। 

ইত্তেফাক/এসআর