শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

টিসিবির জন্য কেনা হবে ১ কোটি ৬৫ লাখ লিটার সয়াবিন তেল

আপডেট : ২০ অক্টোবর ২০২২, ০১:৪২

সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) এর জন্য ১ কোটি ৬৫ লাখ লিটার সয়াবিন তেল ক্রয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। গতকাল বুধবার ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় মোট ছয়টি প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। 

সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব রাহাত আনোয়ার ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে সাংবাদিকদের জানান, সভায় টিসিবি কর্তৃক ১ কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল মেঘনা এডিবল ওয়েল রিফাইনারি লিমিটেড হতে ১৮৯ কোটি ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকায় ক্রয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অপর এক প্রস্তাবে ৫৫ লাখ লিটার সয়াবিন তেল সুপার অয়েল রিফাইনারি লিমিটেড হতে ক্রয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে খরচ হবে ৮৭ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। টিসিবি কর্তৃক স্থানীয়ভাবে উন্মুক্ত দরপত্র পদ্ধতিতে ৮ হাজার মেট্রিক টন মসুর ডাল ক্রয়ের পৃথক প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে খরচ হবে ৭০ কোটি ৯৮ লাখ টাকা। সভায় অপর এক প্রস্তাবে কৃষি মন্ত্রণালয় অধীন বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি) কর্তৃক রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে চুক্তির আওতায় কানাডা হতে ষষ্ঠ লটে ৫০ হাজার মে. টন এমওপি সার ৪৩৭ কোটি টাকায় আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। 

অপর এক প্রস্তাবে বিএডিসি কর্তৃক রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে চুক্তির আওতায় মরক্কো হতে নবম লটে ৪০ হাজার মে. টন ডিএপি সার ৩০২ কোটি ৩৭ লাখ টাকায় আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সভায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড কর্তৃক ২৪টি দরদাতা প্রতিষ্ঠানের নিকট থেকে ৭৮ কোটি ৬৮ লাখ টাকায় ২ কোটি ৪৮ লাখ ৩৫ হাজার ৯৯০ কপি বই মুদ্রণ, বাঁধাই ও সরবরাহের ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

ক্রয় কমিটির আগে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় তিনটি প্রস্তাবে নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে স্থানীয় সরকার বিভাগের অধীনে চট্টগ্রাম ওয়াসা কর্তৃক গৃহীত চট্টগ্রাম মহানগরীর দক্ষিণাঞ্চল পতেঙ্গা ও তত্সংলগ্ন এলাকায় পরিবেশবান্ধব স্যানিটেশন ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্যে ‘চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন সুয়ারেজ প্রজেক্ট ফর পতেঙ্গা ক্যাচমেন্ট’ শীর্ষক প্রকল্প পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ (পিপিপি) ভিত্তিতে বাস্তবায়নের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সভায় জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের অধীন বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি) কর্তৃক ২০২৩ সালের জন্য সৌদি আরামকো এবং আবুধাবি হতে ১৬ লাখ মে. টন অপরিশোধিত জ্বালানি তেল (ক্রুড অয়েল) সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে ক্রয়ের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অপর এক প্রস্তাবে বিপিসি কর্তৃক ২০২৩ সালের জন্য জি-টু-জি ভিত্তিতে মোট পরিশোধিত জ্বালানি তেল ৩৮ দশমিক ৬০ লাখ মে. টন সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে আমদানির প্রস্তাবে নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সরাসরি পদ্ধতিতে ক্রয়ের বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে অতিরিক্ত সচিব বলেন, এটা নীতিগত অনুমোদন। কোন দেশ থেকে এবং কত টাকায় এগুলো আমদানি করা হবে সে বিষয়ে পরবর্তী সময়ে নির্ধারণ করা হবে।

 

ইত্তেফাক/ইআ