রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মেসির চোখে এবারের বিশ্বকাপে ফেভারিট কারা?

আপডেট : ২১ অক্টোবর ২০২২, ১০:৩৬

৩৫ পেরিয়ে গেছে লিওনেল মেসির বয়স। ২০২৬ বিশ্বকাপের সময় হবে ৩৯। তাই কাতার বিশ্বকাপকে মেসির শেষ বিশ্বকাপ ধরে নিয়েছিলেন সতীর্থরা। চার বছর অন্তর এই ফুটবলের মহোৎসবে আর হয়তো দেখা যাবে না আর্জেন্টাইন মহাতারকাকে। ভক্তদের মন খারাপ হলেও এটাই সত্য।

তাই এবার ভক্তদের চাওয়া, বিশ্বকাপ জিতেই ক্যারিয়ার শেষ হোক মেসির। নিজেরও রয়েছে একই ইচ্ছে। অথচ কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের ফেভারিট ধরছেন না মেসি!

আগামী ২০ নভেম্বর মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে বসবে ফিফা বিশ্বকাপ। একটি ট্রফিকে ঘিরে লড়াইয়ে নামবে ৩২টি দেশ। এই আসরে কারা ফেবারিট, এমন প্রশ্নের জবাবে পাঁচটি দেশের নাম বলেছেন মেসি। যেখানে তিনি শিরোপার দৌড়ে সবার চেয়ে এগিয়ে রেখেছেন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল ও ফ্রান্সকে।

স্পেনভিত্তিক সংবাদমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মেসি বলেছেন, বিশ্বকাপে বড় ঘরানার দেশগুলো সব সময়েই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে থাকে। সেই জায়গা থেকে দেখলে ইংল্যান্ডের সঙ্গে আমার তালিকায় থাকবে ব্রাজিল, ফ্রান্স, জার্মানি, স্পেন। এদের দিকে সব সময়েই লোকের নজর বেশি থাকে। হয়তো আরও কিছু দেশ থাকবে, তবে তাদের নিয়ে শেষ পর্যন্ত ভাবার পরিস্থিতি নেই।

তবে কোন দুটি দলকে সম্ভাব্য চ্যাম্পিয়ন হিসেবে এগিয়ে রাখবেন মেসি, সে বিষয়ে বলেছেন, আজকের দিনে দাঁড়িয়ে বিচার করলে বিশ্বকাপের জয়ের সবচেয়ে বড় দাবিদার ব্রাজিল এবং ফ্রান্স। দীর্ঘদিন ধরে একই ফুটবলাররা এই দুটি দলে খেলে আসছেন। তাদের প্রস্তুতি খুব ভালো।

এই দুটি দলকেই কেন বেছে নিলেন, এর ব্যাখ্যায় মেসি বলেছেন, শেষ ইউরো কাপের কথা বাদ দিয়ে বলছি, ফ্রান্স টিমে বেশ কয়েকজন দারুণ ফুটবলার রয়েছেন। ওদের কাছে সবকিছু ভীষণ পরিষ্কার। দীর্ঘদিন ধরে একই কোচ (দিদিয়ে ক্লোদ দেশঁ) রয়েছেন। ব্রাজিলের ক্ষেত্রেও তাই। তিতের অধীনে খেলবে ব্রাজিল।

এদিকে, সাম্প্রতিককালে আর্জেন্টিনা দলের সঙ্গে লিওনেল মেসিও দুরন্ত ছন্দে রয়েছে। গত বছর ফাইনালে ব্রাজিলকে হারিয়ে কোপা আমেরিকা জয় তুলে নেয়। ৩৫টি ম্যাচে অপরাজিত তারা। তবে বিশ্বকাপের আগে চোট-আঘাত চিন্তায় রেখেছে আর্জেন্টাইনদের।

দলের দুই গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলার পাওলো দিবালা এবং অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া উভয়েই চোট পেয়েছেন। মেসি নিজেও কয়েকদিন আগে চোট পেয়েছিলেন। পিএসজির হয়ে মাঠে নামতে পারেননি। সতীর্থদের চোট নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করতে দেখা গিয়েছে মেসিকে।

বিশ্বকাপে মেসির অভিষেক ২০০৬ সালে। এরপর তিনি ২০১০, ২০১৪ ও ২০১৮ বিশ্বকাপে অংশ নেন। চার টুর্নামেন্টের মধ্যে তার দল ২০১৪ সালে শিরোপার সবচেয়ে কাছাকাছি গিয়েছিল। কিন্তু জার্মানির বিপক্ষে অতিরিক্ত মিনিটে স্বপ্নভঙ্গ হয় মেসিদের। সাতবারের ব্যালন ডি’অর জয়ীর জন্য এবারই শেষ সুযোগ ফিফা বিশ্বকাপের ট্রফি হাতে তোলার।

ইত্তেফাক/এসকে