শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ছাগল তো নাচে, সঙ্গে ছাগলের ৩ নম্বর বাচ্চাও নাচে: কাদের

আপডেট : ১৬ নভেম্বর ২০২২, ১৯:০০

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ছাগল তো নাচে, সঙ্গে ছাগলের ৩ নম্বর বাচ্চাও নাচে। বাম রাজনীতি করে, আদর্শের কথা বলে, খেটে খাওয়া মানুষের কথা বলে। এরা আবার হাওয়া ভবনের যুবরাজের সঙ্গে আন্দোলনে যোগ দিতে চায়।

বুধবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপি মহাসচিবের বক্তব্যের জের ধরে কাদের বলেন, আমরা নাকি কাপুরুষ, সে জন্য তাদের মামলা দিচ্ছি। কাপুরুষ আওয়ামী লীগ না কি বিএনপি? কাপুরুষ হালের নেতা, হাওয়া ভবনের যুবরাজ বসে আছে টেমস নদীর পাড়ে। আর বস্তায় বস্তায় দুবাই থেকে টাকা পাঠাচ্ছে। টাকা উড়ে আকাশে-বাতাসে। আর আগুন নিয়ে খেলতে দেবো না। আগুন নিয়ে খেলতে এলে খেলা হবে। জনগণ মোকাবিলা করবে, প্রতিরোধ করবে।

বক্তব্যের শুরুতে উপস্থিত নেতাদের নাম উল্লেখ করে কাদের বলেন, অনেক নেতা, কর্মীর চেয়ে নেতা বেশি এখন। নেতা আর নেতা। বিলবোর্ডের দিকে তাকাই আর ভাবি, ইনি তাহলে কে? সামনে দেখি এক রকম, বিলবোর্ডে দেখি আরেক রকম। কোনো কোনো ছবি আমার নিজেরটাও নিজে চিনি না। হায়রে বিলবোর্ড, শেখ হাসিনার ম্যাজিক; ডিজিটাল বাংলাদেশ। সেটার সুফল আপনারা পাচ্ছেন।

কাদের বলেন, আজ কমিটি হবে। পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার সময় দেখে দেখে নিজেদের লোক পকেটে ঢুকাবেন না। এটা হবে না। যারা যোগ্য, ত্যাগী, দুঃসময়ে পার্টিতে আছে তাদের গুরুত্ব দেবেন। মশারির মধ্যে মশারি খাটাবেন না। দলকে এক রাখবেন না। সুবিধাবাদী, চাঁদাবাজ, মাদকসেবী যেন এ দলের নেতা না হয়।

এর আগে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ও প্রধান বক্তা কেন্দ্রীয় কার্যবিনর্বাহী সংসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আফম বাহাউদ্দীন নাসিম বক্তব্যে বলেন, এই নির্বাচন কমিশনের অধীনেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কেউ নির্বাচন ব্যাহত করার অপচেষ্টা করা হলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আওয়ামী লীগ তাদের প্রতিহত করবে। যারা বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রগতি ব্যাহত করবে আমরা তাদেরকে যে কোনো মূল্যে প্রতিহত ও মোকাবিলা করব। 

বেলা সোয়া এগারটায় বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের ৮ম ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সিনিয়র সদস্য, পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক নিরীক্ষণ কমিটির সভাপতি ও সংসদ সদস্য আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ। 

বেলা ১১টায় জাতীয় সংগীতের সঙ্গে সঙ্গে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের ৮ম ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর সংক্ষিপ্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বরগুনা ১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুর সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য গোলাম রব্বানী চিনু, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য মো. আনিসুর রহমান, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য ও শিল্প ও বাণিজ্যবিষয়ক সম্পাদক মো. সিদ্দিকুর রহমান, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আফম বাহাউদ্দীন নাসিম, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের জেষ্ঠ সদস্য, বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের উদ্বোধক আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ এমপি।
 
সম্মেলনের সভায় উপস্থিত ছিলেন বরগুনা-২ আসনের সংসদ সদস্য শওকত হাচানুর রহমান রিমন, সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য নাদিরা সুলতানা।

এছাড়াও সম্মেলনে জেলা উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃা ও বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃকর্মী উপস্থিত ছিলেন। সমাবেশ সঞ্চালনা করেন বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির।

বিকেলে সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে কাউন্সিল অধিবেশন শেষে বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু এমপিকে সভাপতি , জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্জ্ব জাহাঙ্গীর কবীরকে সাধারণ সম্পাদক ও গোলাম সরোয়ার টুকুকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক করে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়।

ইত্তেফাক/এনএ/পিও