শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ডকুমেন্টারির কথা বলে অ্যাওয়ার্ড দিয়ে গেলেন নোরা!

আপডেট : ১৯ নভেম্বর ২০২২, ১৬:১২

নানা বাধা পেরিয়ে গতকাল ঢাকা আসেন বলিউড তারকা নোরা ফাতেহি। রাজধানীর বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন হলে তাকে নিয়ে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। নির্ধারিত প্রবেশমূল্যের বিনিময়ে এই বলিউড তারকাকে দেখার সুযোগ করে দিয়েছিল আয়োজক প্রতিষ্ঠান উইমেন লিডারশিপ করপোরেশন। যদিও তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় নোরাকে কেবলমাত্র একদিনের শুটিংয়ের অনুমতি দিয়েছিল। এর বাইরে অন্য কোনো অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে পারবেন না বলে শর্ত দেওয়া হয়েছিল।

পাঁচ শর্তে ঢাকায় নোরা ফাতেহিতে আসার অনুমতি দিয়েছিল তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়। অনুমতিপত্রে ‘ক’ নম্বর শর্তে বলা হয়, ‘ভারতীয় অভিনেত্রী নোরা ফতেহিকে ১৮ নভেম্বর একদিন (যাতায়াত সময় ব্যতীত) বাংলাদেশে আগমন/অবস্থান করে ডকুমেন্টারি শুটিংয়ের কাজে অংশগ্রহণ করতে হবে। বর্ণিত সময়ের মধ্যে তিনি অন্য কোনো কাজে বা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না।’

এসব শর্ত মেনে নিয়েই ‘উইমেন লিডারশীপ কর্পোরেশন’ শুক্রবার ঢাকায় নিয়ে আসে বলিউডের এই সুন্দরীকে। যদিও নোরা ঢাকায় আসার আগেই প্রতিষ্ঠানটিরে নামে শর্ত ভঙ্গের অভিযোগ উঠে। নোরার আয়োজনের জন্য ১৫ হাজার, ১০ হাজার ও ৫ হাজার করে টিকিট বিক্রি করে প্রতিষ্ঠানটি।

ছবি: সংগৃহীত

মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন লঙ্ঘন করে নোরাকে আনা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর)। এই পরিস্থিতিতে নোরা আসবেন, নাকি আসবেন না—এ নিয়ে তৈরি হয় সঙ্কা। অবশেষে শুক্রবার রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় উইমেন লিডারশিপ করপোরেশনের আয়োজনে ‘উইমেন এমপাওয়ারমেন্ট ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক আয়োজনে অংশ নেন নোরা।

সন্ধ্যায় বলিউডের ‘দিলবার’ গানের তালে মঞ্চে উঠেন নোরা ফাতেহি। রাত ৯টা ৪০ মিনিটে তিনি মঞ্চে এলে হলভর্তি দর্শক নোরা নোরা বলে চিৎকার শুরু করেন। আগ্রহী দর্শকদের উদ্দেশে উড়ন্ত চুমু ছুড়ে দেন নোরা ফাতেহি।

ছবি: সংগৃহীত

অনুষ্ঠানে মঞ্চে উঠলেও নেচে দর্শক মাতাতে পারেন নি বলিউড এই সুন্দরী। কেবল একটি গানে অন্য ড্যান্সারদের নাচের সঙ্গে হাত তালি দিয়েছেন নোরা। নিজের নাচের জ্বলক দেখাননি তেমন কোনো। তবে মঞ্চে হাজির হয়ে নারীদের নিয়ে কিছু কথা বলেন নোরা এবং নারীদের হাতে অ্যাওয়ার্ডও প্রদান করেন। 

এ বিষয়ে শনিবার আয়োজক প্রতিষ্ঠানের প্রধান ইশরাত জাহান মারিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। যদিও এ বিষয়ে সংবাদমাধ্যমকে মারিয়া বলেন, ‘সরকারি প্রজ্ঞাপনে নোরার পারফর্ম করার পারমিশন ছিল না। আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই তাকে পারফর্ম করানো হয়নি। তাছাড়া তিনি সাত ঘণ্টা জার্নি করে এসেছেন। অনেক ক্লান্ত ছিলেন। এ অবস্থায় আমাদেরও তাকে কিছু বলার ছিল না।’

এর আগে অনেক নাটকীয়তার পর নোরাকে বাংলাদেশে আসার অনুমতি দেয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়। প্রজ্ঞাপনের শর্তগুলোর দ্বিতীয় শর্তে জানানো হয়- সংশ্লিষ্ট প্রযোজক অভিনেত্রীর জন্য যথানিয়মে ভারতে অবস্থিত বাংলাদেশ হাইকমিশন/ উপহাইকমিশন থেকে ভিসা সংগ্রহ করবেন।

তৃতীয় শর্ত, বিদেশি অভিনেত্রীর সঙ্গে সম্পাদিত চুক্তিমূল্য, বিমান ভাড়া, হোটেল ভাড়া (থাকা খাওয়াসহ) এবং যাতায়াত ভাড়ার ওপর ৩০% হারে বাংলাদেশ সরকারের প্রাপ্য অগ্রিম করের প্রমাণ ডকুমেন্টারির সেন্সরের সময় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে দেখাতে হবে। প্রমাণ দেখাতে না পারলে ডকুমেন্টারিটি সেন্সরের জন্য বিবেচনায় আনা হবে না।

চতুর্থ শর্ত হচ্ছে এ আয়োজনে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে কোনো অর্থ প্রদান করা হবে না এবং সর্বশেষ শর্ত হলো উপরের কোনো শর্ত লংঘন করা হলে সংশ্লিষ্ট ডকুমেন্টারি নির্মাণের বিষয়ে সরকার যে সিদ্ধান্ত নেবে তাই চূড়ান্ত হবে।

‘সাকি সাকি’, ‘দিলবার’ গানে নাচ পরিবেশন করে ঝড় তোলা নোরা এ মুহূর্তে বলিউডের সেরা নারী নৃত্যশিল্পীদের একজন। আইটেম গানের শিল্পী হিসেবে নোরা বলিউডের বেশ কিছু ছবিতে নজর কেড়েছেন। মরক্কীয় বংশোদ্ভূত নোরার জন্ম ও বেড়ে ওঠা কানাডায়। তবে বলিউডে নাম লেখানোর স্বপ্ন নিয়ে ভারতে পা রেখেছিলেন তিনি।

ইত্তেফাক/বিএএফ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন