শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বাড়ি ফিরলেন প্রবাসী উজ্জল, তবে লাশ হয়ে

আপডেট : ২১ নভেম্বর ২০২২, ১২:৩১

বেকারত্বের অভিশাপ থেকে মুক্তি পেতে এবং দরিদ্র পরিবারের সদস্যদের মুখে একটু হাসি ফোটাতে ১৫ বছর আগে উজ্জল মিয়া পাড়ি জমিয়েছিলেন মালদ্বীপে। দীর্ঘদিনের প্রবাস জীবনে কিছুটা সুখের দেখা মিললেও  নিয়তির নির্মম পরিহাস, অবশেষে স্বজনদের কাছে ফিরলেন লাশ হয়ে।

গত ৯ নভেম্বর রাতে মালদ্বীপের রাজধানী মালে শহরে গাড়ি মেরামতের একটি গ্যারেজে গ্যাস বিস্ফোরণে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পুরো শরীর পুড়ে মারা যান উজ্জল মিয়া।

রোববার (২০ নভেম্বর) বিকালে উজ্জল মিয়ার মরদেহ জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার আয়মা রসুলপুরে গ্রামের বাড়িতে পৌঁছায়। ছেলের লাশ দেখে বৃদ্ধ মা মল্লিকা বেগমের বুকফাটা কান্না ও বিলাপে রসুলপুরের বাতাশ ভারী হয়ে ওঠে। অন্যান্য আত্মীয় স্বজন ও প্রতিবেশীরাও বিলাপ করছেন। স্বামীর মৃত্যুতে শোকে বিহব্বল হয়ে পড়েছেন স্ত্রী ও দুই মেয়ে।

পরিবারের সদস্যরা জানান, দরিদ্র উজ্জল মিয়া বেকারত্ব ঘোচাতে ২০০৭ সালে পাড়ি জমিয়েছিলেন দ্বীপরাষ্ট্র মালদ্বীপে। সেখানে প্রথমে রাজমিস্ত্রির কাজ নিলেও পরে একটি গেস্ট হাউজে কাজ করতেন। সেখানে কাজ করার সুবাদে সংসারেও সুদিন আসতে শুরু করে।

১৫ বছর পরে ছুটিতে এসে চলতি বছরের ১৭ মে আবার কর্মস্থলে ফিরে যায় উজ্জল। যাবার সময় দুই মেয়েকে বলে যান এবার আসার সময় অনেক কিছু নিয়ে আসবেন। কিন্তু উজ্জল মিয়া আসলেন, তবে জীবন্ত নয়, লাশ হয়ে। জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয় উজ্জলকে।

ইত্তেফাক/এসকে