বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে জয় পেলো পর্তুগাল

আপডেট : ২৫ নভেম্বর ২০২২, ০০:০১

কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ঘানাকে ৩-২ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করলো পর্তুগাল। বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত ১০ মাঠে নামে পর্তুগাল ও আফ্রিকার দেশ ঘানা। প্রথমার্ধ শেষে গোলের দেখা পায়নি কোনো দল। দ্বিতীয়ার্ধে রোনালদো ও ফেলিক্সের গোলে জয় পায় পর্তুগাল।

ম্যাচের শুরু থেকেই আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে পর্তুগাল। অন্যদিকে কাউন্টার অ্যাটাক নির্ভর ফুটবল খেলতে থাকে ঘানা। ম্যাচের ৩১ ঘানের জালে বল জড়ান ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। তবে ফাউলের কারণে তা বাতিল করে রেফারি। 

গোলের জন্য মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে পর্তুগাল। কিন্তু গোলের দেখা পায় না তারা। ম্যাচের ৩৩ মিনিটে ফ্রি কিক পায় পর্তুগাল। গোলের সুযোগ তৈরী করলেও তা ক্লিয়ার করে দেন ঘানার ডিফেন্ডার। ম্যাচের ৩৬ মিনিটে ম্যাচে নিজেদের প্রথম কর্নারের দেখা পায় ঘানা। এই সময় পর পর দুটি কর্নার আদায় করে ঘানা। তবে গোল করতে ব্যর্থ হয় তারা। 

ম্যাচের ৪০ মিনিট পেরিয়ে গেলেও গোল করতে ব্যর্থ হয় দু'দল। ম্যাচের ৪১ মিনিটে ডি বক্সের ভেতর থেকে রোনালদো শট করলেও তা ঘানার ডিফেন্ডারদের গায়ে লেগে প্রতিহত হয়। ম্যাচের ৪৩ মিনিটে ঘানার গোলমুখে শট করলেও তা চলে যায় ক্রসবারের ওপর দিয়ে। শেষ পর্যন্ত গোল না হলে গোলশূন্য থেকে বিরতিতে যায় পর্তুগাল ও ঘানা।   

বিরতি থেকে ফিরে গোলের আশায় মরিয়া হয়ে আক্রমণ চালাতে থাকে পর্তুগাল। তবে গোল করতে ব্যর্থ হয় তারা। ম্যাচের ৬৪ মিনিটে পেনল্টি পায় পর্তুগাল। পেনল্টি থেকে গোল করে পর্তুগালকে এগিয়ে দেয় ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। লিড নিয়ে আক্রমণের ধার বাড়াতে থেকে পর্তুগাল।

তবে  ম্যাচের ৭৩ মিনিটে গোল শোধ করে ঘানা। আন্দ্রে আয়েউ গোল করে ঘানাকে সমতায় ফেরান। তবে ম্যাচের ৭৬ মিনিটে ফের গোলের দেখা পায় পর্তুগাল। পর্তুগালের পক্ষে গোল করেন জোও ফেলিক্স।

পর্তুগালকে আবারও লিড এনে দেন ফেলিক্স। এরপর ম্যাচের ৮০ মিনিটে পর্তুগালের লিড বাড়ান রাফায়েল লিয়াও। ডি বক্সের ভেতরে ঢুকে কোনাকোনি শটে ঘানার গোলরক্ষককে পরাস্ত করে পর্তুগিজদের আনন্দে ভাসান লিয়াও। 

দুই গোলের লিড নিয়ে স্বস্তি নিয়ে খেলতে থাকে পর্তুগাল। কিন্তু ম্যাচের ৮৯ মিনিটে ডান দিক থেকে বাড়ানো বলে হেড করে গোল করে ঘানাকে ম্যাচে ফেরান বুকারি। এক গোলে পিছিয়ে থেকে ম্যাচে সমতা আনার চেষ্টা করে ঘানা।

শেষ দিকে গোলরক্ষকের ভুলে গোল হতে গিয়ে ডিফান্ডের ক্লিয়ারে রক্ষা পায় পর্তুগাল। তবে শেষ পর্যন্ত আর কোন গোল না হলে এক গোলের স্বস্তির জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পর্তুগাল।   

ইত্তেফাক/জেডএইচ