সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

যুদ্ধরত রুশ সৈন্যদের মায়েদের সঙ্গে দেখা করবেন পুতিন

আপডেট : ২৫ নভেম্বর ২০২২, ১৬:৩৯

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন শুক্রবার ইউক্রেনে যুদ্ধরত সৈন্যদের মায়েদের সঙ্গে দেখা করবেন বলে জানিয়েছে ক্রেমলিন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী ইউরোপে সবচেয়ে মারাত্মক সংঘাত রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ ১০ মাসে গড়িয়েছে। 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মনে করে, এই যুদ্ধে উভয় পক্ষের হাজার হাজার সৈন্য আহত ও নিহত হয়েছে। ১৯৬২ সালে কিউবার ক্ষেপণাস্ত্র সংকট পরবর্তী ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণ মস্কো এবং পশ্চিমাদের মধ্যে সবচেয়ে বড় সংঘর্ষের সূত্রপাত করেছে। 

কয়েক লাখ রুশ সৈন্যকে ইউক্রেনে যুদ্ধের জন্য পাঠানো হয়েছে। তাদের মধ্যে ৩ লাখের বেশি সংরক্ষিত সৈন্য ছিল। এই সৈন্যদের সেপ্টেম্বরে পুতিন ঘোষিত একটি সংহতির অংশ হিসেবে ডাকা হয়েছিল। 

রুশ সৈন্য। ছবি: বিবিসি

ক্রেমলিন এক বিবৃতিতে বলেছে, নভেম্বরের শেষ রোববার রাশিয়ায় মা দিবস পালিত হয়। এর আগে ভ্লাদিমির পুতিন বিশেষ সামরিক অভিযানে অংশগ্রহণকারী সৈন্যদের মায়েদের সঙ্গে দেখা করবেন। 

ক্রেমলিন জানিয়েছে, পুতিন যুদ্ধের জন্য ডাকা সংরক্ষিত সৈন্যদের মায়েদের পাশাপাশি সশস্ত্র বাহিনীর পেশাদার সৈন্যদের মায়েদের সঙ্গে দেখা করবেন।

পুতিন বলেছেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু করার বিষয়ে তার কোনো অনুশোচনা নেই। ১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ন পতনের কয়েক দশক পর রাশিয়া অবশেষে অহংকারী পশ্চিমা আধিপত্যের বিরুদ্ধে উঠে দাঁড়িয়েছে। 

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

ইউক্রেন ও পশ্চিমারা বলেছে, পুতিনের সাম্রাজ্য-শৈলী দখল যুদ্ধের কোনো যৌক্তিকতা নেই। ইউক্রেন বলছে, শেষ রুশ সৈন্যকে তাদের ভূখণ্ড থেকে বের করে না দেওয়া পর্যন্ত তারা যুদ্ধ চালিয়ে যাবে।

ইউক্রেন যুদ্ধের ক্ষয়ক্ষতি প্রকাশ করে না। রাশিয়া সর্বশেষ প্রকাশ্যে ২১ সেপ্টেম্বর দেশটির ক্ষয়ক্ষতি প্রকাশ করেছিল। প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই শোইগু বলেছিলেন, অন্তত ৫ হাজার ৯৩৭ জন রুশ সৈন্য নিহত হয়েছেন। তবে এই সংখ্যা অধিকাংশ আন্তর্জাতিক অনুমানের চেয়ে অনেক কম।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সেনানায়ক গত ৯ নভেম্বর অনুমান করেছিলেন, রাশিয়া ও ইউক্রেন প্রত্যেকে তাদের প্রায় ১ লাখ সৈন্যকে আহত বা নিহত হতে দেখেছে।

ইত্তেফাক/এএএম