বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

জাপানের সামনে নক আউট পর্বে ওঠার হাতছানি

আপডেট : ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৪:০৩
এবারের বিশ্বকাপে দ্বিতীয় অঘটন ঘটানো দল জাপান। এশিয়ান এই দলটি প্রথম ম্যাচে ইউরোপিয়ান জায়ান্ট দল জার্মানিকে ২-১ গোলে হারিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল ফুটবল সমর্থকদের। তবে পরের ম্যাচে কোস্টারিকার বিপক্ষে হেরে কিছুটা হোঁচট খায় ব্লু সামুরাইরা। এবার নকআউট পর্বে যাওয়ার লক্ষ্যে তাদের শেষ প্রতিপক্ষ স্পেন। যারা কিনা আসরের শুরু করেছে কোস্টারিকার বিপক্ষে গোল উৎসব পালন করে।
 
আজ রাত ১টায় খালিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে গ্রুপে নিজেদের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে এই দুই দল। গ্রুপ-ই’র শীর্ষে থাকা স্প্যানিশরা এই ম্যাচে অন্তত ড্র করতে পারলেই নক আউট পর্বের টিকিট পাবে। তবে ব্লু সামুরাইদের বিপক্ষে জয় তাদের গ্রুপের শীর্ষ দল হিসেবে পরের রাউন্ডে পৌঁছে দিবে। এই সুযোগটি পুরোপুরি কাজে লাগাতে চায় লা রোজারা। কারণ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে পরের রাউন্ডে উঠলে সেখানে তাদের জন্য অপেক্ষায় থাকবে গ্রুপ-এফ’র রানার্স-আপ দল। আর সেই দলটি ক্রোয়েশিয়া, মরক্কো কিংবা বেলজিয়ামের মধ্যে যে কোন একটি দল হতে পারে।
 
এ ম্যাচকে সামনে রেখে স্প্যানিশ অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার কোকে গতকাল স্থানীয় গণমাধ্যমে বলেছেন, আমাদের একমাত্র পরিকল্পনা হচ্ছে অল আউট ফুটবল খেলা ও জাপানের বিপক্ষে জয় নিশ্চিত করা। আমরা আগেও এমন পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠেছি। যদিও আমরা প্রতিপক্ষকে ছোট করে দেখছি না। এই একটি পন্থায় আমাদের কাল মাঠে নামতে হবে এবং পরের রাউন্ড নিশ্চিত করতে হবে। বর্তমানে গ্রুপে জাপানের পজিশন সত্যিই প্রশংসার দাবিদার।
 
জার্মানি ও স্পেনের সঙ্গে একই গ্রুপে থাকার পরও শেষ ম্যাচের আগে দ্বিতীয় স্থানে থাকাটাও অনেক বড় বিষয় জাপানের জন্য। যদিও কোস্টারিকার কাছে হেরে তারা এক ম্যাচ হাতে রেখে পরের রাউন্ডে যাবার সুবর্ণ সুযোগ হারিয়েছে। স্পেনের সঙ্গে অন্তত এক পয়েন্ট হলেই পরের রাউন্ড নিশ্চিত হবে এশিয়ান জায়ান্টদের। আর সেটা হলে টানা দ্বিতীয় টুর্নামেন্টে জাপান এই কৃতিত্ব অর্জন করবে। কোচ মোরিইয়াসু অবশ্য স্পেনকে বিশ্বের অন্যতম সেরা দল হিসেবে বিবেচনা করেই মাঠে নামতে যাচ্ছেন।
ইত্তেফাক/এসএস

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন