রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

পূর্ব শক্রতার জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় যুবক নিহত

আপডেট : ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭:৪৭

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানায় প্রতিপক্ষের দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে আরিফুর রহমান রিয়াদ (৩৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। শুক্রবার (২ ডিসেম্বের) উপজেলার লংগাইর ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামের বড় দিঘীরপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত রিয়াদ উপজেলার শিউলি গ্রামের সরকার বাড়ির বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আহসান উল্লাহ ফেরদৌসের ছেলে। এ সময় মুছা (২০) নামে আরেক যুবক সন্ত্রাসীদের হামলায় গুরুতর আহত হয়। মুছা সৈয়দপাড়া গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা নিহত রিয়াদের বন্ধুরা জানায়, নিহত রিয়াদ ও তার বন্ধুরা শুক্রবার সন্ধ্যায় বড়দিঘীর পাড়ে ব্যাডমিন্টন খেলছিলো। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে পূর্ব শক্রতার জের ধরে রাজু সিং, রাতুল, বিপুল, শুভ, ইয়াছিন, সফল, তায়েবের নেতৃত্বে ১০/১২ জনের একদল সশস্ত্র বাহিনী রিয়াদের উপর হামলা করে। এ সময় রিয়াদের বন্ধুরা রিয়াদকে রক্ষা করতে গেলে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা তাদের উপরও হামলা করে। সন্ত্রাসীরা রিয়াদ ও    মুছাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি জখম করে ফেলে যায়। রিয়াদের বন্ধুরা স্থানীয়দের সহযোগিতায় রিয়াদ ও মুছাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। অবস্থার অবনতি হলে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাদীন অবস্থায় রিয়াদ মারা যায়। রিয়াদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। সংকটাপন্ন মুছাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

রিয়াদের মা কান্দিপাড়া আস্কর আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক আকলিমা আহসান (৫৫) জানায়, তার ছেলেকে সন্ত্রাসীরা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে খুন করেছে। তিনি খুনিদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও ফাসিঁ দাবি করেন।

এ ঘটনায় কান্দিপাড়া গ্রামের হাসেন আলীর ছেলে বিপুল (২৪), বেলায়েত হোসেনের ছেলে রফিক (৩০) ও নয়াপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে খোকনকে আটক করেছে পাগলা থানা পুলিশ।

পাগলা থানার ওসি মো. রাশেদুজ্জামান বলেন, প্রাথমিক তদন্তে মনে হচ্ছে পূর্ব শক্রতার জেরে এ ঘটনা ঘটতে পারে। ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। মামলা দায়েরের প্রস্ততি চলছে। জড়িত সবাইকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ইত্তেফাক/আই/পিও