বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

রাজপ্রাসাদে ফেরার ইচ্ছে নেই: প্রিন্স হ্যারি

আপডেট : ০৩ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪:৪৪

প্রিন্স হ্যারি জানিয়েছেন, বিরোধ মিটিয়ে রাজপ্রাসাদে ফিরতে চান না তিনি। কারণ ব্রিটিশ রাজপরিবারের ফাঁস হওয়া তথ্যে তাকে ও তার স্ত্রী মেগান মার্কেলকে খলনায়ক হিসেবে চিত্রিত করা হয়েছে। সোমবার (২ জানুয়ারি) প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে এমন ইঙ্গিত দেন তিনি। ডেঈলি এক্সপ্রেসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, রাজকীয় জীবনের স্মৃতি নিয়ে প্রিন্স হ্যারির লেখা বইটি প্রকাশের কয়েকদিন আগে আগামী রোববার (৮ জানুয়ারি) তার এই টেলিভিশন সাক্ষাৎকারটি সম্প্রচারিত হতে যাচ্ছে।

প্রিন্স হ্যারি জানিয়েছেন, বিরোধ মিটিয়ে রাজপ্রাসাদে ফিরতে চান না তিনি।

হ্যারি বলেন, 'তারা যদি এটাই ভাবেন, তাহলে আমাদের কোনো না কোনোভাবে ভিলেন হিসেবে দেখিয়ে যাওয়াটাই বরং ভালো। তারা বিরোধ নিষ্পত্তিতে কোনো আগ্রহ দেখায়নি।' 

তবে হ্যারি 'তারা' বলতে কাকে বোঝাতে চেয়েছেন তা স্পষ্ট করেননি। ওই সাক্ষাৎকারে ৩৮ বছর বয়সী প্রিন্স হ্যারি জানান, এত কিছুর পরেও তিনি তার বাবা রাজা তৃতীয় চার্লস ও ভাই উইলিয়াম ফিরে পেতে চান।

তবে হ্যারি 'তারা' বলতে কাকে বোঝাতে চেয়েছেন তা স্পষ্ট করেননি।

হ্যারি ও মেঘান (৪১) গত মাসে নেটফ্লিক্সে দেখানো একটি সিরিজে ব্রিটিশ রাজপরিবারের সঙ্গে তাদের অভিজ্ঞতার কথা খুলে জানিয়েছিলেন। রাজপরিবার থেকে দম্পতির আকস্মিক প্রস্থান এবং ২০২০ সালে উত্তর আমেরিকায় চলে যাওয়ার পিছনে কী ছিল তা হাইলাইট করে।

রাজপরিবারের বিবাদ নিয়ে প্রকাশিত সংবাদের বিষয়ে হ্যারি বলেন, 'এইভাবে এটি করার দরকার ছিল না - ফাঁস, ফাঁদ পাতা। আমি একটি পরিবার চাই, একটি প্রতিষ্ঠান নয়।'

হ্যারি ও মেঘান (৪১) গত মাসে নেটফ্লিক্সে দেখানো একটি সিরিজে ব্রিটিশ রাজপরিবারের সঙ্গে তাদের অভিজ্ঞতার কথা খুলে জানিয়েছিলেন।

রাজপরিবার ছেড়ে আসা হ্যারি বলেন, 'আমি আমার বাবাকে ফিরে পেতে চাই। আমি আমার ভাইকে ফিরে পেতে চাই।' 

প্রিন্স হ্যারির স্মৃতিকথা ১০ জানুয়ারি প্রকাশিত হবে। এর আগে তিনি ব্রিটিশ নেটওয়ার্ক আইটিভি ও আমেরিকান সিবিএস টেলিভিশনে দুইটি পৃথক সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। আগামী রোববার দুইটি সাক্ষাৎকার প্রচার হওয়ার কথা রয়েছে।

ইত্তেফাক/ডিএস