বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

সুকেশ একজন ঠগবাজ: নোরা

আপডেট : ২১ জানুয়ারি ২০২৩, ১৮:২৮

এরইমধ্যে বেশ কয়েকবার ২শ’ কোটি তছরুপ মামলায় আদালতের বারান্দায় পা রাখতে হয়েছে অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ও নোরা ফতেহিকে। বিষয়টি নিয়ে বিরক্ত জ্যাকুলিক সুকেশের বিরুদ্ধে সম্প্রতি মুখ খুলেছেন। সেই পথেই এবার হাঁটলেন আরেক অভিযুক্ত নোরা। দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্টে কনম্যান সুকেশ চন্দ্রশেখরের বিরুদ্ধে সরব হলেন এই অভিনেত্রী।

‘বান্ধবী হওয়ার বিনিময়ে বিলাসবহুল গাড়ি-বাড়ির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল সুকেশ।’ আদালতে এমনটাই দাবি করেছেন নোরা।

নোরা ফাতেহি

আদালতে জবানবন্দিতে নোরা আরও দাবি করেন, পিঙ্কি ইরানির মাধ্যমে তার এক তুতো ভাইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেন সুকেশ। সুকেশকে তিনি চিনতেন না, তার সঙ্গে কখনও সামনা-সামনি আলাপ বা ব্যক্তিগত সম্পর্ক ছিল না তার।

প্রতারণা মামলার তদন্ত চলাকালীন এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)-এর দফতরে সুকেশকে প্রথমবার সামনে থেকে দেখেন তিনি। ২০০ কোটির যে তছরুপ মামলায় সুকেশ চন্দ্রশেখর অভিযুক্ত, সেই মামলায় প্রতারণার শিকার তিনি নিজে বলে কোর্টে জানান নোরা।

এদিকে সুকেশের সঙ্গে গভীর সম্পর্কে জড়িয়ে নানা ধরনের দামী উপহার হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে নোরার বিরুদ্ধে। তবে এই বিষয়গুলো পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন নোরা।

নোরা ফতেহি

আদালতে তিনি বলেন, ‘পিঙ্কি ইরানি আমাকে বলেন যে, সুকেশের জন্য জ্যাকুলিন ফার্নান্ডেজও লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। কিন্তু নিজের বান্ধবী হিসেবে তিনি নোরাকেই পছন্দ করেছেন। বলিউডে এমন অনেক নায়িকা আছেন, যারা সুকেশের সংসর্গ পাওয়ার জন্য অপেক্ষা করে আছেন। আর বিলাশবহুল গাড়ি সুকেশ আমাকে দেননি, পিঙ্কি ইরানি চেন্নাইয়ের এক অনুষ্ঠানের পারিশ্রমিক হিসেবে দিয়েছিলেন। সুকেশ একজন ঠগবাজ এবং ২০০ কোটি টাকার তছরুপ মামলায় জড়িত, সেটা তাকে গ্রেফতারের পরই জানতে পেরেছি।’

ইত্তেফাক/বিএএফ