বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

তিব্বতে তুষারধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে অন্তত ২৮

আপডেট : ২২ জানুয়ারি ২০২৩, ০০:১৯

তিব্বতের নিয়েংচি শহরে তুষারধসের ঘটনায় অন্তত ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম জানিয়েছে। গত মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাত প্রায় ৮টার দিকে দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহরটির একটি সড়ক সুড়ঙ্গের বহির্গমন পথে তুষারধসের এ ঘটনা ঘটে। এতে গাড়িতে থাকা বহু মানুষ আটকা পড়ে।

সিনহুয়া জানিয়েছে, স্থানীয় কর্তৃপক্ষ তিব্বত মহাসড়কের সাড়ে ৭ কিলোমিটার একটি অংশে আটকে পড়া লোকজনকে উদ্ধারের জন্য মোট ১ হাজার ৩৪৮ জন কর্মী ও ২৩৬টি সরঞ্জাম মোতায়েন করেছিল। এরপর থেকে শুক্রবার পর্যন্ত ৫৩ জনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়, তাদের মধ্যে পাঁচজন গুরুতর আহত বলে গ্লোবাল টাইমস জানিয়েছে। শুক্রবার রাতে সিনহুয়া জানায়, উদ্ধারকাজ শেষ হয়েছে। তবে এখনো কত জন নিখোঁজ রয়েছে তা জানায়নি তারা। 

অন্য আরেকটি বার্তা সংস্থা জানায়, মেইনলিং কাউন্টির গ্রাম পাই ও মেডগ কাউন্টির ডক্সং লা টানেলর মধ্যবর্তী স্থানের একটি অংশ তুষারধসে চাপা পড়েছে। এতে অনেক গাড়ি ও মানুষ আটকা পড়েছে। সাড়ে ৪ হাজার মিটার (১৪ হাজার ৭৬৪ ফুট) উচ্চতার ডক্সং লা পর্বত বেশ খাড়া এবং এর ভেতর দিয়ে যাওয়া মহাসড়কের ডক্সং লা অংশটি বেশ বন্ধুর। সিনহুয়া জানিয়েছে, আবহাওয়া উষ্ণ হচ্ছে আর এর মধ্যে জোরালো বাতাসের কারণে তুষারধসের ঘটনাটি ঘটেছে। প্রায় ৯ হাজার ৩০০ ফুট গড় উচ্চতায় অবস্থিত নিয়েংচি শহরটি তিব্বতের একটি জনপ্রিয় পর্যটনকেন্দ্র।

বিশ্বের সর্বোচ্চ পবর্তমালা হিমালয়ে প্রায়ই তুষারধসের ঘটনা ঘটে। এর আগে অক্টোবরে ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য উত্তরাখণ্ডের দ্রৌপদী কা ডান্টা-টু পর্বতে আরেকটি তুষারধসের ঘটনায় অন্তত ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল বলে বিবিসি জানিয়েছে।

ইত্তেফাক/ইআ