বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

প্রথম বিবাহবার্ষিকীতে রাজের কাছে কী চাইলেন পরীমণি

আপডেট : ২২ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫:১৭

সবাইকে অবাক হঠাৎ করে বিয়ের ঘোষণা। এরপর সন্তানের আগমনী বার্তা, ঘরোয়া আয়োজনে বিয়ের অনুষ্ঠান। বছর না ঘুরতেই স্বামীকে নিয়ে সন্দেহ, ক্ষোভ-অভিমানে ঘর ছাড়া। মান অভিমান ভুলে আবার সংসারে ফেরা। গত এক বছরে এমন সব ঘটনায় বার বার তোলপাড় তুলেছেন ঢাকাই সিনেমার তারকা দম্পতি পরীমণি ও শরিফুল রাজ। এই জুটির (আনুষ্ঠানিক) প্রথম বিবাহবার্ষিকী আজ।

প্রথম বিবাহবার্ষিকীর আগেরদিন পরীমণি তার অনুভূতি জানিয়েছেন। বলেছেন, সংসার জীবনে সবাইকেই ফাইট করতে হয়। আমরা দুইজনই মিডিয়ার মানুষ। মিডিয়াতে কাজ করি বলেই হয়তো আমাদের দিকে ফোকাসটা সবার বেশিই থাকে। আমার মনে হয়, সংসার জীবনে ঝামেলা হওয়া খুবই স্বাভাবিক বিষয়। এটা ঠিক হয়ে যাওয়া আরও বেশি স্বাভাবিক।

বিশেষ এই দিনে স্বামী শরিফুল রাজের পরীমণির চাওয়া কি- এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, “রাজ আমাকে বলেছে আমি ওর কাছে কি চাই? আমি ওকে বলেছি, আমাকে টিকিট কেটে সিনেমা হলে গিয়ে সিনেমা দেখাতে হবে। আমি, তুমি ও রাজ্য মিলে আমার ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ দেখবো। আপনাদের সবার দাওয়াত। বসুন্ধরা স্টার সিনেপ্লেক্সে আমি আপনাদের আপনাদের অপেক্ষায় থাকবো।”

২০২১ সালে ‘গুণিন’ সিনেমার শুটিংয়ে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান পরীমণি ও শরিফুল রাজ। একইবছর ১০ অক্টোবর গোপনে বিয়ে হয় তাদের। শরীফুল রাজ ও পরীমণির বিয়ের ঘটক ছিলেন পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিম, উকিল বাবা ছিলেন রেদওয়ান রনি। পরে বছর জানুয়ারিতে অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর দেন এই তারকা দম্পত্তি। পরে ১০ আগস্ট রাজ-পরীর কোলজুড়ে আসে এক পুত্রসন্তান, তার নাম শাহেম মুহাম্মদ রাজ্য।

ইত্তেফাক/বিএএফ