বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

নারী ক্যাম্প থেকে চার ফুটবলারের বিদায়

আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০২৩, ১১:২৪

নারী ফুটবল ক্যাম্প থেকে চার ফুটবলারকে বিদায় করে দেওয়া হয়েছে। তাদের খেলার মান ভালো না। চারজনকে বাদ দিয়ে নতুন চার জনকে নেওয়া হয়েছে। গতকাল থেকেই চার ফুটবলার বিদায় নিয়েছেন বাফুফে ভবনের চার তলায় অবস্থিত আবাসিক ক্যাম্প থেকে।

বিদায় নেওয়া ফুটবলাররা জাতীয় দলের আনুচিং মগিনি, সাজেদা খাতুন এবং অনূর্ধ্ব-২০ ফুটবল দলের লিমা ও নবিরন বাদ পড়েছেন। নারী জাতীয় দলের কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটন বললেন, ‘পারফরম্যান্স ভালো না। তাই বিদায় করতে হয়েছে। যারা ভালো করেছেন তাদেরকে নেওয়া হয়েছে দলে।’

নতুন চার জন হচ্ছেন বসুন্ধরা কিংসের সুমাইয়া, জামালপুর কাচারীপাড়া একাদশের আফরোজা খাতুন, নাসরিন স্পোর্টস ক্লাবের আইরিন আক্তার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া এফসির সাগরিকা। বাফুফের ভবনে সারাবছর আবাসিক ক্যাম্প হয়। এখন ৬৮ জন নারী ফুটবলার রয়েছেন সেখানে। আবাসিক সংকট থাকলেও বাফুফে কখনো ক্যাম্প বন্ধ রাখেনি। নারী সাফের চ্যাম্পিয়ন দল বাংলাদেশ। নারী সাফে খেলে আসা ফুটবলার হচ্ছেন আনুচিং মগিনি এবং সাজেদা খাতুন। ছোটন বললেন,‘ক্যাম্পের ফুটবলারদের পারফরম্যান্স যাচাই-বাছাই করা হয়। ইমপ্রুভমেন্ট দেখাতে হয়। ভালো করতে না পারলে বিদায় নিতে হবে।’ 

কখন কখন ইমপ্রুভমেন্ট পরীক্ষা নেওয়া হয়? ছোটন বললেন, ‘আমাদের এলিট ক্যাম্পে ইমপ্রুভমেন্ট পরীক্ষা সব সময় চলতে থাকে। যাদের বিদায় করা হয়েছে তারা অনেক সুযোগ পেয়েছে। ক্রমাগত ব্যর্থ হলে তাকে আমরা রাখব কীভাবে। আপনি আমার প্রশ্নের জবাব দেন, যদি একই সঙ্গে অন্য ফুটবলাররা ভালো করে। পারফরম্যান্স আপ টু দ্য মার্ক হয় তাহলে আপনি কাকে রাখবেন? যে পারছে না তাকে রেখে ভালো পারফরম্যান্সের ফুটবলারকে বিদায় করে দেবেন? যারা বাদ পড়েছেন তারা যথেষ্ট সুযোগ পেয়েছেন।’ 

ক্যাম্পে নতুন ডাক পাওয়া ফুটবলাররা লিগে ভালো করেছে, দাবি কোচ ছোটনের। সামনে অনূর্ধ্ব-২০ ফুটবল সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ রয়েছে। সেই দলটা চূড়ান্ত করতে লিমা ও নবিরনকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

ইত্তেফাক/এসএস