বুধবার, ২৬ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

তুমি অনেকের কাছে অনুপ্রেরণা, সানিয়াকে বললেন শোয়েব

আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫:৫৯

গ্র্যান্ডস্ল্যাম ক্যারিয়ারকে বিদায় বলে দিয়েছেন ভারতের টেনিস কিংবদন্তি সানিয়া মির্জা গতকাল অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের মিক্সড ডাবলসে হেরে গ্র্যান্ডস্ল্যামকে বিদায় জানালেন তিনি।

গ্র্যান্ড স্ল্যামে নিজের শেষ ম্যাচ খেলার পর থেকেই অগণিত বার্তা পাচ্ছিলেন সানিয়া। কিন্তু নিজের স্বামী পাকিস্তানি ক্রিকেট কিংবদন্তি শোয়েব মালিকের পক্ষ থেকে কোনো বার্তাই পাওয়া যাচ্ছিলো না।

ছবি: সংগৃহীত

অবশেষে সেই ম্যাচের প্রায় দশ ঘণ্টা পরে স্ত্রী সানিয়াকে শুভেচ্ছা জানালেন শোয়েব মালিক। পাকিস্তানের ক্রিকেটার জানিয়েছেন, স্ত্রীর কৃতিত্বে তিনি গর্বিত।

সানিয়ার শেষ ম্যাচের পর শোয়েবের শুভেচ্ছা না জানানোতে জল্পনা-কল্পনা বাড়তেই ছিলো। দু’জনের মধ্যে তৈরি হওয়া সাম্প্রতিক দূরত্বের জল্পনা আরও বাড়িয়ে দিচ্ছিলো এই নৈঃশব্দ। অবশেষে শুক্রবার সন্ধ্যায় টুইট করলেন বর্তমানে বিপিএল খেলতে বাংলাদেশে অবস্থান করা শোয়েব।  

ছবি: সংগৃহীত

নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে শোয়েব লেখেন, 'খেলাধুলার জগতে সব নারীর কাছেই তুমি আশার প্রতীক ছিলে। গোটা টেনিস জীবনে যা যা অর্জন করেছ, তার জন্য অত্যন্ত গর্বিত। তুমি অনেকের কাছে অনুপ্রেরণা। এভাবেই শক্তিশালী হয়ে আগামী দিনে এগিয়ে যাও। অবিশ্বাস্য টেনিস জীবনের জন্যে অনেক অনেক শুভেচ্ছা।'

জীবনের শেষ গ্র্যান্ডস্ল্যামের ফাইনালে ওঠার পরেও সানিয়াকে কোনো শুভেচ্ছা জানাননি শোয়েব। সেই শুভেচ্ছাবার্তা এলো শেষ ম্যাচের পর। সানিয়ার প্রতি শোয়েবের এই আবেগঘন বার্তার পরে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, দু’জনের সম্পর্কের বরফ গলতে শুরু করেছে কিনা ।

ছবি: সংগৃহীত

গতকালের ম্যাচের পর গ্র্যান্ডস্ল্যামকে বিদায় জানাতে গিয়ে কাঁদতেও দেখা যায় সানিয়া মির্জাকে। তিনি বলেন, আমি কাঁদছি, এটা আসলে খুশির কান্না। চোখের এই জল দুঃখের নয়। চাইলে আরও গোটা দুয়েক প্রতিযোগিতা খেলতেই পারতাম।

সানিয়া আরও বলেন, ২০০৫ সালে মেলবোর্ন থেকেই টেনিস যাত্রা শুরু করেছিলাম। তখন আমার বয়স ছিল ১৮। সেরেনা উইলিয়ামসের সঙ্গে খেলেছিলাম। আমার জীবনে রড লেভার অ্যারেনার আলাদা জায়গা রয়েছে। গ্র্যান্ডস্ল্যাম ক্যারিয়ার শেষ করার জন্য এর থেকে ভাল জায়গা আমার কাছে নেই।

ইত্তেফাক/এসএস

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন