বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

চুরির অভিযোগে ৩ শিশু শিক্ষার্থীর চুল কেটে দিলেন মেয়র

আপডেট : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১:১৬

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে নাট-বল্টু চুরির অভিযোগে তিন মাদ্রাসার শিক্ষার্থীর হাত বেঁধে বেধড়ক পিটিয়ে মাথার চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে গোপালদী পৌর মেয়র এম এ হালিম সিকদারের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।  

সোমবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে উপজেলার গোপালদী পৌরসভার রামচন্দ্রদী এলাকায় এ নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ভুক্তভোগী তিন শিশু শিক্ষার্থী সকালে মক্তবে যাওয়ার পথে মেয়র হালিম সিকদারের মালিকাধীন সিকদার সাইজিংয়ের সামনে পড়ে থাকা কয়েকটি নাট-বল্টু কুড়িয়ে খেলা করছিল। এ সময় মেয়র লোকজন নিয়ে কুড়িয়ে পাওয়া ওই নাট-বল্টু চুরির অভিযোগে তাদের আটক করে এবং হাত বেঁধে মারধর করেন। 

একপর্যায়ে এক শিশু শিক্ষার্থীর চাচা শিশুদের পক্ষে নির্যাতন না করার জন্য অনুরোধ করলেও নির্যাতন থেকে রক্ষা করতে পারেনি। আশপাশে অনেক লোক জড়ো হয়। পরে রামচন্দ্রদী বাসস্ট্যান্ডে এনে তাদের মাথার চুল কেটে ভয়ভীতি দেখিয়ে ছেড়ে দেয়। 

এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক বলেন, কোনো কারণ ছাড়াই আমার ছেলেসহ তিন শিশুকে নির্যাতন করেছে। আমি এ ঘটনার বিচার দাবি করছি। 

গোপালদী পৌর সভার মেয়র এমএ হালিম সিকদার ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, এরা পেশাদার চোর। অতীতেও তারা চুরি করেছে। তাই তাদের চুল কেটে দিয়েছি। 

আড়াইহাজার থানার ওসি আজিজুল হক হাওলাদার জানান, এ ব্যপারে অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ইত্তেফাক/পিও