শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

১২ বিভাগীয় কর্মকর্তার পদে আড়াইহাজারে নারীরা   

আপডেট : ০৮ মার্চ ২০২৩, ১৫:৪২

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় প্রশাসনে নারীদের প্রাধান্য সকলের নজর কাড়ে। আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সায়মা আফরোজ ইভা ও এসিল্যান্ড পান্না আক্তারসহ ১২টি বিভাগীয় পদে নারীরা কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। কর্মস্থলে তাদের দেখে সাধারণ মানুষ উৎসাহ পান।

নারীদেরকে সচরাচর প্রাধান্য দিতে গড়িমসি করে গ্রামের মানুষ। এমন মানুষদের জন্য আড়াইহাজার উপজেলা একটা দৃস্টান্ত স্বরূপ।

উপজেলা প্রশাসনের ১২টি বিভাগীয় আড়াইহাজারের সুধীমহল বলেন, আমাদের দেশের নারীরা অনেকটা পথ এগিয়ে গেছে।  নারীরা সমাজের বিভিন্ন স্তরে নিজেদের মেধা-মনন তুলে ধরেন। আজকে আড়াইহাজার উপজেলার নারী সমাজ প্রগতির পথে হাঁটছে। কমেছে বাল্যবিবাহ ও নারী নির্যাতন। বেড়েছে নারীদের উচ্চশিক্ষার হার।

ডা. সায়মা আফরোজ ইভা

তিনি নরসিংদীতে মুসলিম ঐতিহ্যবাহী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা মরহুম অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি, নির্বাচিত জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও নরসিংদী আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি। মা নরসিংদী জেলার মহিলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সভানেত্রী। আড়াইহাজারের স্থানীয় সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুর স্ত্রী ডা. ইভা জহিরুল হক মেডিক্যাল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাশ করে ২০১০ সালে সরকারি চাকরিতে যোগ দেন। অদ্যবধি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছেন আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। ঐশ্বর্য ও প্রাচুর্যের মধ্যে বড় হয়েও বেছে নিয়েছেন মানবসেবার পেশা। মেধাবী ও পরিশ্রমী এই মানুষটির জীবনযাপন অত্যন্ত সাদামাঠা।

এসিল্যান্ড পান্না আক্তার

নবাগত এসিল্যান্ড পান্না আক্তারের বাড়ি টাঙ্গাইল জেলার সখিপুরে। বাবা মো. চান মাহামুদ মিয়া একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা, পেশায় প্রধান শিক্ষক। তিনি জেলাতেই পড়াশোনা। ২০০৮ সালে এসএসসি ও ২০১০ সালে এইচএসসি। এরপর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাবলিক এডমিনিস্ট্রেশন বিভাগ থেকে অনার্স ও মাস্টার্স সম্পন্ন করেন। ৩৬তম বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারে যোগ দেন। প্রথম থেকেই তিনি সাফল্যের পথে হাঁটছেন।  ৩ আগস্ট তিনি আড়াইহাজার উপজেলায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে যোগদান করেন। প্রথম দিন থেকে তার পারফরমেন্স প্রশাসন ও সুধীমহলে প্রশংসিত হচ্ছে।

মাহমুদা আকতার

সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা, আড়াইহাজার উপজেলায় অত্যান্ত সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তার সুন্দর আচারণ উপজেলাবাসীকে মুগ্ধ করেছেন। তিনি ১৯৮৭ সালের মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার পুরান বাউশিয়া গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। এক ভাই ও এক বোনের মধ্যে তিনি ছোট। ২০০২ সালে তিনি বাউশিয়া এম এ আজহার উচ্চ বিদ্যালয় এসএসসি পাস করেন এবং ২০০৪ সালে গজারিয়া কলিমুল্লাহ কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। এরপর ২০০৫ সালে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে মৎস্যবিজ্ঞান অনুষদে ভর্তি হন এবং সফলভাবে ২০১০ সালে বিএসসি ইন (ফিশারিজ) অনার্স ও এমএসসিইন (ফিশারেজ ম্যানেজমেন্ট) সম্পন্ন করেন। এরপর ২০১১ সালে পূবালী ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। ব্যাংকার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করে তিনি থেমে থাকেননি। ২০১২ সালে ৩০তম বিসিএস পরীক্ষার মাধ্যমে তিনি বিসিএস মৎস্য ক্যাডারে যোগদান করেন।

রাফেজা খাতুন

আড়াইহাজার উপজেলা শিক্ষা অফিসার হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে কর্মরত আছেন। তিনি সিআরপি সাভার উপজেলার উত্তর চাপাইন গ্রামে ৫ ফ্রেবুয়ারি ১৯৭১ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি কাটিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়াশুনা শুরু করেন। এরপর সম্ভুষপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৯৮৭ সালে এসএসসি পাশ করেন। ১৯৮৯ সালে তিনি সাভার কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন। পরবর্তীতে তিনি সাভার বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে ডিগ্রি পাশ করেন। সবশেষ তিনি ২০০৩ সালে ঢাকার ইডেন কলেজ থেকে মাস্টার্স সম্পন্ন করেন। শিক্ষাক্ষেত্রে তিনি বিএড ও এমএড ডিগ্রি অর্জন করেন। কর্মজীবন শুরু হয় প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষকতা দিয়ে। তিনি প্রথমে হয়রত আহসান উল্লাহ সরকারি বিদ্যালয় সাভারে যোগদান করেন। সেখানে তিনি তিন বছর শিক্ষকতা করেন। তিনি বর্তমানে আড়াইহাজার উপজেলায় উপজেলা শিক্ষা অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

নাহিদা নাছরিন শিমুল

গত ৩ বছর ধরে আড়াইহাজার উপজলোয় সমবায় র্কমর্কতা হিসেবে র্কমরত আছেন নাহিদা নাছরিন শিমুল। তার গ্রামের বাড়ি ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলায়। বাবা একে এম নুরুন নবী এবং মাতা হাছিনা বেগম। তিনি ফেনী সরকারি প্রাথমকি বিদ্যালয় থেকে ৫ম শ্রেণি, বেগমগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এস এস সি, চৌমুহনী সরকারি এসএ কলেজ থেকে এইচএসসি সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজ থেকে স্নাতক এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতোকোত্তর পাস করেন। তিনি ২০০০ সালে ৬ জুলাই সমবায় বিভাগ চট্টগ্রামে যোগদান করে র্কমজীবন শুরু করেন। তার বাবা কুমিল্লা জেলা রেজিস্ট্রার হিসেবে ১৯৯৫ সালে চাকরি থেকে অবসর নেন। বর্তমানে নাহিদা নাছরিন শিমুল আড়াইহাজার উপজেলায় অত্যন্ত সততা ও দক্ষতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি খুবই মিশুক এবং আন্তরিক।

রেজুয়ানা হক

আড়াইহাজারের আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা হিসেবে অত্যন্ত সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি ১৯৮৮ সালে ৮ এপ্রিল চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার উথলী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা রেজাউল হক, মা মোসাম্মৎ সুফিয়া খাতুন। উথলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে তিনি প্রাথমিক শিক্ষা গ্রহণ করেন। এরপর উথলী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাশ করেন। পরবর্তী তিনি আদর্শ সরকারি মহিলা কলেজ চুয়াডাঙ্গা থেকে এইচ এসসি পাশ করেন। এরপর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গনিত বিভাগে অনার্স এবং মাস্টার্স সম্পন্ন করেন। পড়ালেখা শেষে তিনি বিভিন্ন বেসরকারি স্কুলে চাকরি করেন। কিছু দিন রমনা রেলওয়ে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন। সবশেষ তিনি ২০১৮ সালে ৩ জুন আড়াইহাজার উপজেলায় আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেন। বর্তমানে তিনি সুনামের সঙ্গে উক্ত উপজেলায় কর্মরত আছেন।

শারমিন সুলতানা

শারমিন সুলতানা উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা, প্রজীপ  বি আরডিবি আড়াইহাজার, নারায়ণগঞ্জ। তিনি গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানী  উপজেলার বরইহাট  গ্রামে এক সম্ভান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা মোহাম্মদ মতিয়ার রহমান মোল্লা ও মা ফরিদা বেগম। তিনি গোপালগঞ্জ বিনাপানি উচ্চ বিদ্যালয় ১৯৯১ সালে  এসএসসি, ঢাকার বেগম বদরুন্নেসা  কলেজ হতে এইচএসসি এবং বিএ অনার্স ও মাস্টার্স শেষ করে। ৩১ অক্টোবর  ২০০২  সালে তিনি বি আরডিবিতে উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা হিসেবে চট্রগ্রামের মীরেরশরাই   উপজেলায় প্রথম কর্মজীবন শুরু করেন। এরপর তিনি বিভিন্ন উপজেলায় সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করেন। ফ্রেবুয়ারির ১ তারিখে তিনি আড়াইহাজারে যোগদান করেন।

নাজমা আক্তার

আড়াইহাজার উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হিসেবে অত্যন্ত সুনামের সঙ্গে কাজ করছেন নাজমা আক্তার। তিনি এর আগে সোনারগাঁও উপজেলায় কর্মরত ছিলেন। সর্বশেষ ও বর্তমান কর্মস্থল নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায়। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত। তিনি দেশের বিভিন্ন উপজেলায় চাকরি করেছেন।

সুলতানা এলিন

আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার নেতৃত্বে গেল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়। তিনি ১৬ জুলাই ১৯৮০ সালে মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা এনামুল হক ভুইয়া, মা ফিরোজা বেগম, স্বামী মো, শাহজালাল মিয়া। তিনি ১৯৯৫ সালে মানবিক বিভাগ থেকে রামপাল এনবি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করেন। ১৯৯৭ সালে রামপাল মাহা বিদ্যালয় থেকে এইচএসসি এবং ১৯৯৯ সালে সরকারি হরগঙ্গা কলেজ থেকে স্নাতক পাশ করেন। ২০০১ সালে তেজঁগাও কলেজ থেকে রাস্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে স্নাতকোত্তর পাশ করেন। তিনি নারায়ণঞ্জ জেলা নির্বাচন অফিসে কর্মরত ছিলেন। সেখান থেকে শ্রীপুর এবং সবশেষ আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাচন অফিসে যোগদান করেন।

নাজনীন শিরিন সুলতানা

উপজেলা রিসোর্স সেন্টার ইন্সট্রাক্টর হিসেবে সুনামের সহিত আড়াইহাজারে কর্মরত আছেন। প্রাথমিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দিয়ে বেশ সুনাম অর্জন করেছেন। তার বাবা মো. আব্দুল হালিম। তিনি পেশায় শিক্ষক ছিলেন। নাজনীন শিরিন সুলতানা ২০০৩ সালে কুমিল্লার দাউদকান্দিতে প্রথম চাকরিতে যোগদান করেন। এরপর অত্যন্ত সুনামের সঙ্গে রুপগঞ্জ ও আড়াইহাজারে দায়িত্ব পালন করেন।

তাছলিমা আক্তার

তাছলিমা আক্তার বর্তমানে অত্যন্ত সততা, দক্ষতা ও জনপ্রিয়তার সঙ্গে কাজ করছেন তথ্যসেবা কর্মকর্তা হিসেবে তথ্যকেন্দ্র, তথ্যআপা। তিনি নারায়ণগঞ্জ জেলার রুপগঞ্জ থানার ব্রাহ্মনখালী গ্রামে মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। বাবা অলি প্রধান ও মা লতিফা বেগমের ৪ সন্তানের মধ্যে তিনি সবার ছোট। তার শিক্ষা জীবন শুরু হয় ব্রাহ্মনখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। মাধ্যমিক পর্যায়ে পড়াশুনা করেন জনতা উচ্চ বিদ্যালয়ে ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় এবং একই শাখায় উচ্চমাধ্যমিক শেষ করেন সলিমউদ্দিন চৌধুরী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে। বিবিএস (অনার্স) ও এমবিএস (মাস্টার্স) শেষ করেন ইডেন মহিলা কলেজ থেকে ব্যবস্থাপনা বিষয় নিয়ে। শুধু পড়াশোনায় নয় খেলাধুলায়ও ছিলেন পারদর্শী। গত দুই বছ নারীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে আড়াইহাজার উপজেলায় নিয়োজিত আছেন।

বেগম সামছুন্নাহার আকন্দ

বেগম সামছুন্নাহার আকন্দ আড়াইহাজার উপজেলার দারিদ্র বিমোচন কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত। সামছুন্নাহার আকন্দ  সদ্য যোগদান করেছেন আড়াইহাজারে। তার বাবা জাফর আলী আকন্দ। তার গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলায়। তিনি বিগত ২৫ বছর ধরে সরকারি চাকরি করছেন।

ইত্তেফাক/আরএজে

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন