শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ডিবি কার্যালয় থেকে বেরিয়ে যা বললেন শাকিব খান

আপডেট : ১৯ মার্চ ২০২৩, ২১:৩১

রহমত উল্লাহ নামের কথিত প্রযোজকের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) কার্যালয়ে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন চিত্রনায়ক শাকিব খান। রোববার (১৯ মার্চ) দুপুরে ডিবি কার্যালয়ে প্রবেশের দীর্ঘ সময় পর সন্ধ্যায় বের হন তিনি।

শাকিব খান সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘রহমত উল্লাহ শুধু আমার সঙ্গেই নয়, তিনি দেশের মানুষের প্রতারণা করেছেন। যারা আমাকে পছন্দ করেন, এমন লাখো মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। আমার নামে মিথ্যা, ভুয়া সংবাদগুলো সবার কাছে ছড়িয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় রহমত উল্লাহ এই কাজের পেছনে একা ছিলেন না। রহমত উল্লাহর পেছনে আরও অনেক লোক জড়িত ছিল। তিনি কোনো প্রযোজকই না, তার সাথে কোনো ডিলও (চুক্তি) হয়নি। আমি সমস্ত অভিযোগ সংগ্রহ করে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করছি।’

শাকিব খান আরও বলেন, ‘গতকাল (শনিবার) থানায় মামলা নিলো না, গড়িমসি করলো। আমি একজন সাধারণ নাগরিক হিসেবে থানায় গিয়ে একটা মামলা করতে পারবো না, এটা খুব আশ্চর্যজনক মনে হয়েছে। গত রাতে আমার ঘুম হয়নি। আমি শুনেছিলাম, ওই প্রতারক দ্রুত দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাবে। এজন্য গতকাল রাতে দ্রুত থানায় গিয়েছিলাম মামলার জন্য।’

ডিবি অনেক দ্রুত মামলা-অভিযোগ নিষ্পত্তি করে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এ জন্য আমি ডিবিপ্রধান হারুন ভাইকে ফোন দেই এবং তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। দীর্ঘ সময় নিয়ে তারা আমার কথা শুনেছেন, নানা বিষয় খতিয়ে দেখেছেন। আমাকে আশ্বস্ত করেছেন, যত দ্রুত সম্ভব ওই প্রতারককে আইনের আওতায় আনবেন। আমি অনেক আশ্বস্ত তার (ডিবিপ্রধান হারুন) কথায়।’

ডিবিতে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে শাকিব খান বলেন, ‘গতকাল গুলশান থানার ওসির ব্যবহার দেখে আমার কাছে মনে হয়েছে তারা এই প্রতারককে দেশ ছেড়ে পালিয়ে যেতে সহায়তা করছে কিনা! আমার কাছে এটা ডাউট (সন্দেহ) হচ্ছে। না হলে তারা একটা সাধারণ মামলা নিতে কেনো এত গড়িমসি করবেন! আগেতো মামলাটা নেবে, যাচাই-বাছাই করবে, তারপর তথ্য-উপাত্ত দেখবে। এরপর তারা তদন্ত করে দেখবে বিষয়টি। কিন্তু তারা বিষয়টি আমলেই নিলেন না।’

ইত্তেফাক/এসকে