বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

চুরির অপবাদে কিশোরকে নির্যাতন, ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

আপডেট : ০২ মে ২০২৩, ২২:০৩

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে চুরির অপরাধে ১৩ বছরের এক কিশোরকে নির্যাতনের অভিযোগে সাজ্জাত হোসেন নামে এক  ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২ মে) সকালে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সাজ্জাত হোসেন উপজেলার সিংড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান।

জানা যায়, উপজেলার আবিরের পাড়া আশ্রয়ণ কেন্দ্রে মনোয়ারা বেগম তার ছেলেকে নিয়ে বসবাস করেন। তাদেরকে উচ্ছেদ করার উদ্দেশ্যে চেয়ারম্যান সাজ্জাত হোসেন ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মফিজাল মিয়া (৫০) প্রায়শই বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার চেয়ারম্যান সাজ্জাত হোসেন ও ইউপি সদস্য মফিজাল মিয়া চুরির অপবাদ দিয়ে লোহার রড দিয়ে বেধড়ক মারধর করে। এ সময় মনোয়ারা বেগম ছেলেকে রক্ষা করতে গেলে তাকেও মারধর করা হয়। আশ্রয়ণ কেন্দ্রের ঘর তালাবদ্ধ করে তাদেরকে এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলে যেতে বলে। এ সময় তাদেরকে এলাকা না ছাড়লে হত্যার হুমকিও দেওয়া হয়। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার সকালে মনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে ঘোড়াঘাট থানায় মামলা করেন। 

ঘোড়াঘাট থানার ওসি আবু হাসান কবির বলেন, নির্যাতিত কিশোরের মা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। তার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অপর আসামি মফিজাল মিয়া পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ইত্তেফাক/এবি/পিও