বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৩ আশ্বিন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

মারা গেলেন নারায়ণগঞ্জে বিস্ফোরণে দগ্ধ ৭ জনই

আপডেট : ১০ মে ২০২৩, ১১:২০

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে রহিমা স্টিল মিলের বয়লার বিস্ফোরণে দগ্ধ আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যক্তির নাম মো. ইব্রাহিম (৩৫)। তার শরীরের ২৮ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিলো। এ নিয়ে বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ ৭ জনই মারা গেলেন। বার্ন ইনস্টিটিউটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ বুধবার (১০ মে) সকাল ৯টার দিকে তিনি মারা গেছেন। মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে।
 
মৃত মো. ইব্রাহিমের আত্মীয় মো. আলমামুন জানান, তার বাড়ি বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার গজালিয়া গ্রামে। তার বাবার নাম মোকলেসুর রহমান হাওলাদার (মৃত)। তিনি স্ত্রী ও দুই মেয়ে নিয়ে রুপগঞ্জের গাউছিয়া চুঙ্গিপাড়ায় থাকতেন। 

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. এস এম আইউব হোসেন বলেন, রূপগঞ্জ থেকে দগ্ধ অবস্থায় ৭ জনকে আমাদের এখানে নিয়ে আসা হয়েছিলো। আজ সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ইব্রাহিম হাওলাদার নামে আরও এক যুবক মারা গেছেন। তার শরীরে ২৮ শতাংশ দগ্ধ ছিলো। তার বাড়ি নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানা এলাকায়।
 
ঘটনার দিন কারখানাটির সুপারভাইজার হারুন অর রশিদ জানান, তারা কারখানায় ভাট্টিতে লোহা গলানোর কাজ করছিলেন। ভাট্টির আশপাশে ১৫-১৬ জন শ্রমিক ছিলেন। হঠাৎ করেই ভাট্টিতে বিস্ফোরণ হয়ে গলিত লোহা চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। এতে তারা দগ্ধ হন। উদ্ধার করে সঙ্গে সঙ্গে দগ্ধদের শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে নিয়ে আসা হয়।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টার দিকে রহিমা স্টিল মিলে বয়লার বিস্ফোরণে সাতজন দগ্ধ হয়। তাদের শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে আনা হয়। সেখানে সন্ধ্যায় শঙ্কর নামে একজনের মৃত্যু হয়। আজ ইব্রাহিমের মৃত্যুর মধ্যদিয়ে দগ্ধ ৭ জনই মারা গেলেন।

ইত্তেফাক/আর