শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ত্রাণ নিয়ে বাকবিতণ্ডা, দেবরের ঘুষিতে প্রাণ গেল গৃহবধূর

আপডেট : ২১ মে ২০২৩, ১৯:৩০

কক্সবাজারের টেকনাফে ঘূর্ণিঝড় মোখায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের ত্রাণ নিয়ে বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে দেবরের ঘুষিতে সনজিদা বেগম (৪৫) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। 

রোববার (২১ মে) সকালের দিকে উপজেলার সেন্ট মার্টিন ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সনজিদা সেন্টমার্টিন দ্বীপের পশ্চিমপাড়া এলাকার নজির আহমদের স্ত্রী।

জানা যায়, ঘূর্ণিঝড় মোখায় সেন্টমার্টিন দ্বীপের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থা থেকে ত্রাণসামগ্রী দেওয়া হচ্ছে। শনিবারও ত্রাণ দেওয়া হয়। সেই ত্রাণ নিয়ে নিহত সনজিদা বেগম ও তার স্বামীর সঙ্গে দেবর নুরুল ইসলামের বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতি হয়। হাতাহাতির একপর্যায়ে দেবরের ঘুষিতে সনজিদা মাটিতে লুটিয়ে পড়ে অজ্ঞান হয়ে যান। এসময় প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাসালি বিনতে ফয়েজ বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই ওই নারীর মৃত্যু হয়েছে। পরে স্বজনরা তাকে হাসপাতাল থেকে নিয়ে গেছেন।

সেন্ট মার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান বলেন,  ত্রাণ নিয়ে কোনো কারণে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে সনজিদা মাটিতে লুটে পড়েন বলে জেনেছি। তাকে উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। 

টেকনাফ মডেল থানার ওসি আবদুল হালিম বলেন, ত্রাণ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে দেবর ভাবীর মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে বলে জেনেছি। এতে মাটিতে পড়ে যাওয়ার পর অসুস্থ সনজিদা আর উঠতে পারেনি। সম্ভবত হৃদরোগের ভুগছিলেন বলেই তার মৃত্যু হয়েছে। তবে, নিহতের শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। পরিবার থেকেও কোনো অভিযোগ দেওয়া হয়নি।

ইত্তেফাক/এবি/পিও