রোববার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ৯ আশ্বিন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

বাংলাদেশ থেকে নার্স নিতে চায় যুক্তরাজ্য

আপডেট : ০৭ জুন ২০২৩, ২১:৪০

যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতালের জন্য বাংলাদেশ থেকে নার্স নিতে চায় বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান।

বুধবার (৭ জুন) দুপুরে আগারগাঁওয়ের বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) ভবনে বাংলাদেশে নবনিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার সারাহ ক্যাথেরিন কুকের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

সালমান এফ রহমান বলেন, ‘যুক্তরাজ্যের নার্স সংকট রয়েছে। তারা বাংলাদেশ থেকে তাদের হাসপাতালগুলোর জন্য নার্স চায়। লন্ডনে থাকাকালীন যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গেও আমার কথা হয়েছে। তিনিও আমাকে বলেছিলেন তাদের নার্সের সংকট রয়েছে। বাংলাদেশ থেকে তারা নার্স চায়।’

বাংলাদেশে নবনিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার সারাহ ক্যাথেরিন কুকের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান। ছবি: শফিক ইসলাম
 
তিনি বলেন, ‘তখন আমি বলেছিলাম, হ্যাঁ, আমরা নার্স সাপ্লাই করতে পারি তবে আমাদের নিজেদেরও নার্স পরিপূর্ণ না। নতুন নার্সের জন্য আমরা ট্রেনিং করছি। বেশ কিছু নার্সিং ইনস্টিটিউট করেছি। ভবিষ্যতে আমাদের নিজস্ব চাহিদা পূরণ করার পরে আমরা চেষ্টা করব আপনাদের সহযোগিতা করতে।’
 
বাংলাদেশকে দক্ষিণ এশিয়ার এয়ার হাবে পরিণত করতে যুক্তরাজ্য কাজ করতে চায় মন্তব্য করে সালমান আরও বলেন, ‘বিশ্বখ্যাত এভিয়েশন প্রতিষ্ঠান এয়ারবাসের সঙ্গে আমরা একটি চুক্তি করেছিলাম। সেটি শুধু বিমান কেনার চুক্তি নয়। এয়ারবাস চায় এভিয়েশনের একটি হাব যেন বাংলাদেশে থাকে। এর মধ্যে এয়ারবাস থেকে যাত্রী ও কার্গো বিমান কেনার বিষয়গুলো অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। চুক্তির বিষয়ে উনি পরবর্তী পদক্ষেপের বিষয়ে জানতে চেয়েছিলেন। আমি বলেছি এটা প্রসেসে আছে। কার্যক্রম শুরু হয়েছে। কিছুদিন আগে আমরা একটা সামিট করেছিলাম। সেখানে এই বিষয়ে কথা হয়েছে। তার ফলোআপ হিসেবে তারা যৌথভাবে একটা কর্মশালা করতে চায়। আমরা খুব শিগগিরই সে কর্মশালার ব্যবস্থা করার চেষ্টা করছি।’
 
তিনি বলেন, ‘বিশ্বের সেরা কয়েকটি লাইফ ইন্স্যুরেন্সের মধ্যে যুক্তরাজ্যের ‘প্রুডেনশিয়াল লাইফ ইন্স্যুরেন্স’ একটি। যারা কিনা বাংলাদেশে আসার আগ্রহ প্রকাশ করেছে জানিয়ে সালমান এফ রহমান বলেন, প্রুডেনশিয়াল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। বিনিয়োগের ক্ষেত্রে তাদের আনা যায় কিনা সে বিষয়টি আমরা দেখছি।’
 
এর আগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে ব্রিটেনের নতুন হাইকমিশনার হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন সারাহ ক্যাথেরিন কুক। যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র, কমনওয়েলথ ও ডেভেলপমেন্ট অফিস (এফসিডিও) তার এই নিয়োগের কথা জানিয়েছে।
 
সারাহ কুক যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া বিভাগের প্রধান হয়ে দায়িত্ব পালন করেন। তার আগে ২০১৬ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত তানজানিয়ায় ব্রিটিশ হাইকমিশনার ছিলেন। তবে এবার দায়িত্ব পাওয়ার মধ্য দিয়ে কুক যে প্রথম ঢাকায় এলেন তেমনটি নয়, ২০১২ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের ডিপার্টমেন্ট ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্টের (ডিএফআইডি) বাংলাদেশ কার্যালয়ের প্রধান ছিলেন তিনি।

ইত্তেফাক/এসজেড