বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

হিট অফিসারকে মির্জা ফখরুলের ‘উপহাস’, ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান

আপডেট : ১১ জুলাই ২০২৩, ১৭:৫৩

ঢাকা সিটি করপোরেশনের জন্য নিয়োগ পাওয়া চিফ হিট অফিসারকে নিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের আপত্তিকর মন্তব্যের প্রতিবাদে সমাবেশ ও কুশপুত্তলিকা দাহ করেছেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নারী শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (১১ জুলাই) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাস-বিরোধী রাজু ভাস্কর্যে শিক্ষার্থীরা এ কর্মসূচি পালন করেন। এ সময় আপত্তিকর বক্তব্যের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন ডেকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে নিঃশর্তে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান তারা। 

কর্মসূচিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি কোহিনূর আক্তার রাখি বলেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে আমরা বলে দিতে চাই, তিনি বোধহয় বয়সের সঙ্গে সঙ্গে তার চিন্তাশক্তিও হারিয়ে ফেলছেন। ঢাকার হিট অফিসার নিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছেন তা নিছক তার একক বক্তব্য নয়। এটি তার দলের দৈন্যতা, দলের নেতাকর্মীদের নিচু মানসিকতা ও নারীদের প্রতি তাদের দৃষ্টিভঙ্গির প্রতিচ্ছবি। তিনি যে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছেন তার জন্য তিনি যেন নারী সমাজের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজিয়া সুলতানা বলেন, মির্জা ফখরুলকে বলতে চাই, আপনি নিজে একজন বয়স্ক লোক হয়ে নিজের বয়সের একজন মেয়েকে কীভাবে বলতে পারেন আপনি তাকে দেখে হিটেড হয়ে যান। এরকম একজন লোক দলের মহাসচিব কীভাবে হয় সেটাই আমাদের প্রশ্ন। কীভাবে কথা বলতে হয় আপনাকে শিখতে হবে। আপনাকে অবশ্যই সংবাদ সম্মেলনে নারী সমাজের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফাল্গুনী বলেন, বিএনপি মহাসচিব যে বক্তব্য দিয়েছেন তা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। তিনি আসলে নারী জাতিকে সম্মান দিতেই শিখেননি। তার পূর্বসূরিরাও তা দিতে পারেননি, তিনিও দিতে পারছেন না এবং তার উত্তরসূরিরাও দিতে পারবেন না। 

গত ৮ জুলাই ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঢাকার হিট অফিসারের ব্যাপারে বলেন, ‘বিদেশ থেকে ছেলে-মেয়ে নিয়ে এসে সিটি করপোরেশনে নিয়োগ দেয়, নাম দেয় হিট অফিসার। তো আমরা তো এখন হিটেড হয়ে গেলাম। চিকন গুনিয়া, ডেঙ্গু, করোনায় স্বাস্থ্য সেবা না পেয়ে পেয়ে আমরা তো এখন হিটেড বুটেড হয়ে গেলাম।’

ইত্তেফাক/এনএ/এমএএম