মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

নির্বাচনের আগে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কোনো রকমের চুক্তি করবে না বাংলাদেশ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট : ১১ আগস্ট ২০২৩, ০১:১১

চলতি মাসে ঢাকায় বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে নিরাপত্তা সংলাপ হওয়ার কথা রয়েছে। ওই সময় দুই দেশের মধ্যে ‘আকসা (অ্যাকুইজিশন অ্যান্ড ক্রস-সার্ভিসিং অ্যাগ্রিমেন্ট)’ ও ‘জিসোমিয়া (জেনারেল সিকিউরিটি অব মিলিটারি ইনফরমেশন অ্যাগ্রিমেন্ট)’ নামে দুই চুক্তি সইয়ের বিষয়ে আলোচনা হতে পারে। তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘আগামী নির্বাচনের আগে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বিভিন্ন রকম চুক্তি করব বলে আমার মনে হয় না।’

বৃহস্পতিবার (১০ আগস্ট) বিকেলে রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে নাগরিক সমাজের সঙ্গে মতবিনিময়ের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা জানান।

এ সময় ‘আকসা’ ও ‘জিসোমিয়া’ চুক্তির বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘আগামী জাতীয় নির্বাচনের আগে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে জিসোমিয়া ও আকসা চুক্তি সই হবে না।’

কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশের সঙ্গে প্রতিরক্ষাবিষয়ক ‘আকসা’ ও ‘জিসোমিয়া’ দুটি চুক্তি সই করতে আগ্রহী দেখাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। আকসার আওতায় মার্কিন বাহিনী খাদ্য, জ্বালানি, গোলাবারুদ ও সরঞ্জামাদি বিনিময় করে থাকে। জিসোমিয়া চুক্তির আওতায় সামরিক গোয়েন্দা তথ্যের বিনিময় হয়।

নিরাপত্তাসংক্রান্ত বিভিন্ন ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, আকসা হচ্ছে সামরিক রসদবিষয়ক একটি রূপরেখা চুক্তি। মূলত সামরিক রসদ সরবরাহ, এ-সংক্রান্ত নানা ধরনের সেবা আর মেরামতের উপাদান রয়েছে এই চুক্তিতে। অন্যদিকে জিসোমিয়া হচ্ছে মার্কিন সরকার ও মার্কিন সমরাস্ত্র নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি সইকারী দেশের সরকার ও সমরাস্ত্রবিষয়ক বিশেষায়িত সংস্থার মধ্যে সম্পাদিত গোপন তথ্য বিনিময়ের চুক্তি।

যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছে, দুর্নীতির মাধ্যমে কেউ যুক্তরাষ্ট্রে টাকা পাচার করলে, সেই টাকা জব্দ করা হবে। এ নিয়ে জানতে চাইলে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিলে আমরা খুব খুশি হব। তবে ওদের (যুক্তরাষ্ট্রের) দেশে আইন আছে কেউ সেখানে টাকা নিয়ে গেলে ওয়ার্ক পারমিট পায়, নাগরিকত্ব পায়। ওদের মতো এমন আরও অনেক দেশ আছে। তবে আমাদের দেশ থেকে কেউ যদি সেখানে (যুক্তরাষ্ট্রে) টাকা নিয়ে যায়, আর তারা যদি সে টাকা জব্দ করে, আমরা খুব খুশি হব।’

 

ইত্তেফাক/এসজেড