মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

অফিসের সামনে বাঘ দেখে কিংকর্তব্যবিমূঢ়

আপডেট : ১২ আগস্ট ২০২৩, ১৬:৪৯

পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের কচিখালী অভয়ারণ্য কেন্দ্রের বনরক্ষীরা এখন বাঘ আতঙ্কে ভুগছেন। প্রতিনিয়ত অফিস ব্যারাকের আশেপাশে বাঘ ঘোরাফেরা করায় বনরক্ষীদের স্বাভাবিক চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে বলে জানা গেছে। 

বন কার্যালয়ের সামনে আবারও বাঘের দেখা পেয়েছেন বনরক্ষীরা। বাঘের ভিডিও ধারণ করে বৃহস্পতিবার (১০ আগস্ট) ফেসবুকে প্রকাশ করেন মোস্তাক নামের এক বনরক্ষী। এক মিনিট ১৬ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, বাঘটি বনকর্মীদের ব্যারাকের সামনে ঘোরাফেরা করছে। পরে লোকজনের উপস্থিতি টের পেয়ে বনের দিকে চলে যাচ্ছে।

ছবি ভিডিও থেকে

কচিখালী বন অফিসের বনরক্ষী মোস্তাক (ভিডিও ধারণকারী) বলেন, ডিউটি শেষে সোমবার রাতে তিনি ঘুমিয়ে পড়েছিলেন। মঙ্গলবার সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখেন, কেন্দ্রের বাইরে একটি বাঘ দাঁড়িয়ে আছে। হঠাৎ বাঘটি দেখে কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে যান। ভয়ে ভয়ে মুঠোফোন দিয়ে ভিডিও করা শুরু করেন তিনি। একটু পর বাঘটি বনের দিকে চলে যায়।

কচিখালী অভয়ারণ্য কেন্দ্রের বনরক্ষীরা জানান, সাম্প্রতিক কালে সুন্দরবনের কচিখালী এলাকায় বাঘের ব্যাপক আনাগোনা দেখা যায়। গত এক মাসে কচিখালী বনরক্ষীদের অফিস ও ব্যারাকের  আশেপাশে প্রায়ই বাঘ চলে আসে। বাঘ তার আপন মনে অফিস আঙ্গিনায় অনেক সময় ধরে অবস্থান করে চলে যায়। গত জুলাই মাসের প্রথম দিকে একটি বাঘ একটানা তিন দিন যাবত অফিসের পাশে অবস্থান করায় বনরক্ষীরা এক প্রকার অবরুদ্ধ অবস্থায় দিন পার করেছিল। গত বুধবার (৯ আগস্ট)  সকালেও একটি বাঘ কচিখালী ফরেস্ট অফিসের পাশে অনেকক্ষন অবস্থান করায় বনরক্ষীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।

ছবি ভিডিও থেকে  

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন বনরক্ষী জানান, ব্যারাকের কাছে ক্রমাগত বাঘের উপস্থিতির কারণে ভয়ে তাদের স্বাভাবিক চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে।  

পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জ কর্মকর্তা (এসিএফ) শেখ মাহবুব হাসান কচিখালী অভয়ারণ্য কেন্দ্রে বাঘের আনাগোনা বৃদ্ধির বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, শরণখোলা রেঞ্জে বাঘ বৃদ্ধি পেয়েছে। কচিখালী সংলগ্ন ডিমেরচরে একসঙ্গে তিনটি, চান্দেশ্বরে জোড়া এবং আরও কয়েক জায়গায় একাধিক বাঘ বনরক্ষীরা দেখতে পেয়েছেন বলে এসিএফ জানিয়েছেন।

ইত্তেফাক/পিও