শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

শ্রমিকদের জায়গা দখল করে মার্কেট নির্মাণ: গয়না টিটুর সেই অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

আপডেট : ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৯:২৭

বাগেরহাটের মোংলায় সরকারি জায়গা দখল করে অবৈধভাবে গড়ে তোলা গয়না টিটুর সেই মার্কেট অবশেষে ভেঙে দেওয়া হয়েছে। সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বন্দর কর্তৃপক্ষের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাসফাকুর রহমান পৌর শহরের ১ নম্বর লেবার জেটি সংলগ্ন এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান চালিয়ে ওই অবৈধ মার্কেটটি ভেঙে দেয়।

এ সময় অভিযুক্ত গয়না টিটু ভুয়া কাগজপত্র দেখাতে চাইলেও তা  গ্রহণযোগ্য হয়নি। এর আগে এই জায়গা ছেড়ে দিতে বন্দর কর্তৃপক্ষ ৭ দিনের নোটিসও দেন তাকে। কিন্তু সেই নোটিসের পরোয়া না করে গয়না টিটু তার মার্কেট ঠেকাতে স্থানীয় প্রভাবশালী কিছু ব্যক্তিদের কাছে দৌড়ঝাপ শুরু করেন। শেষ রক্ষা না হওয়ায় ভেঙঙে ফেলতে হয়েছে তার অবৈধ মার্কেটটি।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাসফাকুর রহমান সাংবাদিকদের কাছে বলেন, মোংলা নদীর পাড়ে বন্দর কর্তৃপক্ষের জায়গা রাতারাতি দখল করে এক শ্রেণির অসাধু ব্যক্তিরা বিভিন্ন স্থাপনা করেন। তারা পাকা ইমারত করে গড়ে তোলেন একাধিক মার্কেট, যা সম্পূর্ণ অবৈধ। 

এ বিষয়ে গয়না টিটু বলেন, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের কাছে জায়গা বরাদ্দের আবেদন করেই তিনি মার্কেট নির্মাণ করেছিলেন।

তবে বন্দর কর্তৃপক্ষের পরিচালক (প্রশাসন) মো. শাহীনুর আলম বলেন, কেউকে ওই জায়গা বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। এটা অবৈধভাবে দখল করেছেন। তাই উচ্ছেদ করা হচ্ছে।

মোংলা ঘাট শ্রমিকদের বিশ্রামগারের জন্য নির্ধারণ করে ২০১৯ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি উদ্বোধন করেছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার। কিন্তু শ্রমিকদের সেখান থেকে নামিয়ে অদৃশ্য ক্ষমতার বলে গয়না টিটু সেই জায়গা দখল করে মার্কেট নির্মাণ করেন। এ নিয়ে ক্ষোভে ফুঁসে উঠেন ঘাট শ্রমিকেরা এবং মানববন্ধনসহ নানা আন্দোলন করতে থাকেন তারা। তাদের জায়গা ফিরে পেতে গত ৫ সেপ্টেম্বর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর স্মারকলিপিও দেন ঘাটের শ্রমিকেরা। অবশেষে বন্দর কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপে সেই অবৈধ মার্কেট উচ্ছেদ করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/পিও