বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ফেসবুক লাইভে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও সাংবাদিকদের ওপর ক্ষোভ ঝাড়লেন রাবি ছাত্রলীগ নেত্রী

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৫:০২

'ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ছোটকরে প্রতিনিয়ত নিউজ করছে সাংবাদিকরা। এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কোনো কথা বলছে না। আপনারা যদি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের পাশে না থাকেন তাহলে আমি বলবো ভিসি-প্রোভিসি ও প্রক্টর ছাত্র উপদেষ্টাকে আওয়ামী পরিষদ থেকে নিয়োগ দেওয়াই শেখ হাসিনার ভুল সিদ্ধান্ত।' 

শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক লাইভে এসে এমন মন্তব্য করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের মন্নুজান হলের সাধারণ সম্পাদক ফরজানা শশী।

এসময় তিনি বলেন, বিগত কয়েকদিন ধরে দেখছি সোশ্যাল মিডিয়া, টিভি চ্যানেল ও অনলাইন পোর্টালসহ সবজায়গায় বিশ্ববিদ্যালয়ের হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের নিয়ে একটাই নিউজ দেখা যাচ্ছে। নিউজে এতো লাল-নীল-হলুদ রংঢং দিয়ে সাংবাদিকতা করা উচিত নয়। ছাত্রলীগ নেত্রীদের হলে সাম্রাজ্য দ্বারা কি বুঝাচ্ছেন আপনারা। সাংবাদিকতা করবেন স্মার্ট সাংবাদিকতা করেন। ছাত্রলীগের ট্যাগ লাগাতে পারলেই আপনাদের নিউজ হিট। 

তিনি আরও বলেন, সাংবাদিকরা আমাদের পেছনে যেভাবে লেগেছে হাঁটলেও এখন ভয় করে। ঠোঁটে লিপস্টিক ব্যবহার করলেও ভয় লাগে কখন জানি বলে এই নেত্রীর টাকার উৎস কোথায়। আরে ভাই লিপস্টিক কেনার টাকা আমার পরিবার আমাকে দিতে পারবে না। সাংবাদিকরা কখন কি নিউজ করে দেয় এই ভয়ে মানুষের সাথে একটু জোরে কথা পর্যন্ত বলি না আমরা।

হলের যারা নেতৃত্বে থাকে তারা একটু অতিরিক্ত সুযোগ সুবিধা পেয়েই থাকে। যেখানে আমাদের দল শেখ হাসিনা সরকার এখনো ক্ষমতায় আছেন। যে দলই ক্ষমতাই থাকে তারা একটু বেশি সুযোগ সুবিধা পেয়ে থাকে এটাই স্বাভাবিক। এর আগে যখন বিএনপি ক্ষমতায় ছিলো তখন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা পেয়েছে, শিবিরের নেতাকর্মীরা পেয়েছে।

এর আগে, অবৈধভাবে নিজের দখলে রাখা সিট ছাড়ার নির্দেশ দেওয়ায় হল গেটে তালা দেয়ার অভিযোগ ওঠে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) রহমাতুন্নেসা হল ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না আক্তার তন্নির বিরুদ্ধে। এদিকে গত সোমবার (১১ সেপ্টম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলে ঐশী নামে এক ছাত্রলীগ নেত্রীর রুম সিলাগালা করেছে হল প্রশাসন। এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মরত সাংবাদিকরা সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় তিনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও সাংবাদিকদের দায়িত্ব নিয়ে এসব কথা বলেন।

ইত্তেফাক/এআই