বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

মেয়াদ শেষে ইউপিতে প্রশাসক, সিটি ভোট তিন মাস আগে

আপডেট : ১০ অক্টোবর ২০২৩, ০৩:৩০

পৌরসভা ও জেলা পরিষদের মতো মেয়াদোত্তীর্ণ ইউনিয়ন পরিষদেও (ইউপি) প্রশাসক বসানো যাবে—এমন বিধান রেখে ‘স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) (সংশোধন) আইন, ২০২৩’-এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। পাশাপাশি সিটি করপোরেশনের নির্বাচন হবে পাঁচ বছরের মেয়াদ অবসানের পূর্বের তিন মাসের মধ্যে। এর জন্য স্থানীয় সরকার সিটি করপোরেশন আইনের সংশোধনীও অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

গতকাল সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভা বৈঠকে এই অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতে সভাপতিত্ব করেন। মন্ত্রিসভার সদস্য ও সংশ্লিষ্ট সচিবেরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন সিদ্ধান্ত সম্পর্কে ব্যাখ্যা দেন।

জানা যায়, সংশোধিত খসড়া আইন অনুযায়ী, ইউনিয়ন পরিষদ সচিবের নাম হবে ‘ইউনিয়ন পরিষদ প্রশাসনিক কর্মকর্তা’।  ইউনিয়ন পরিষদের মেয়াদ শেষ হলে নতুন চেয়ারম্যান না পাওয়া পর্যন্ত সরকার প্রশাসক নিয়োগ করতে পারবে—আইনে এমন বিধান যুক্ত করা হয়েছে। সংশোধিত আইন অনুযায়ী, এত দিন গেজেট জারির ৩০ দিনের মধ্যে ইউনিয়ন পরিষদের কার্যভার গ্রহণ করতে হতো। এখন থেকে শপথের পরে ১০ কার্যদিবসের মধ্যে প্রথম সভা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যরা ভাতা পান। কিন্তু তারা যখন দায়িত্বে থাকেন না, তখন ভাতা পাবেন কি না, আইনে তা স্পষ্টভাবে বলা ছিল না।

সিটি করপোরেশনের ভোট হবে মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের তিন মাসের মধ্যে

মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের ছয় মাস নয়, তিন মাসের মধ্যে সিটি করপোরেশন নির্বাচন হতে হবে। এর জন্য ‘স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) (সংশোধন) আইন, ২০২৩’-এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন জানান, এখন কোনো ওয়ার্ড কাউন্সিলরের পদ ফাঁকা হলে পাশের অন্য ওয়ার্ড কাউন্সিলরকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। খসড়া আইন অনুযায়ী এক্ষেত্রে সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলরকে (তিনটি ওয়ার্ড মিলে একজন কাউন্সিলর) দায়িত্ব দিতে হবে।

শ্রমিকদের মাতৃত্বকালীন ছুটি ১২০ দিন, নিতে পারবেন সুবিধামতো

নারী শ্রমিকদের মাতৃত্বকালীন ছুটি আট দিন বাড়িয়ে ১২০ দিন করেছে সরকার। সেই সঙ্গে এই ছুটি নারী শ্রমিকের ইচ্ছা অনুযায়ী তার সুবিধামতো সময়ে নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। এমন বিধান রেখে ‘বাংলাদেশ শ্রম (সংশোধন) আইন, ২০২৩’-এর খসড়া নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আগে নারী শ্রমিকেরা মাতৃত্বকালীন ছুটি পেতেন ১৬ সপ্তাহ। এটি তিনি মা হওয়ার আগে ও পরে মিলিয়ে পেতেন। এখন এটি পরিবর্তন করে মাতৃত্বকালীন ছুটি ১২০ দিন করা হয়েছে। এর মাধ্যমে মাতৃত্বকালীন ছুটি আট দিন বাড়ানো হয়েছে। সেই সঙ্গে এই ছুটি নারী শ্রমিক তার সুবিধামতো সময়ে নিতে পারবেন।

ইত্তেফাক/এমএএম