বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

টিয়ারশেল-সাউন্ড গ্রেনেড ছুড়ে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করলো পুলিশ

আপডেট : ০২ নভেম্বর ২০২৩, ১৪:০৬

বেতন-ভাতা বাড়ানো ও আন্দোলনরত শ্রমিকদের ওপর হামলার প্রতিবাদে আজ আবারও সড়কে নেমে বিক্ষোভ করছিলেন পোশাক কারখানায় কর্মরত শ্রমিকরা। তবে সাউন্ড গ্রেনেড ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২ নভেম্বর) সকাল ৮টা থেকে চতুর্থ দিনের মতো আন্দোলন শুরু করেন শ্রমিকরা।

শুরুতে রাজধানীর মিরপুরে পূরবী সিনেমা হলের সামনের প্রধান সড়ক অবরোধ করেন শ্রমিকরা। ফলে সড়কটি দিয়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বেলা ১২টার দিকে পুলিশ ও আন্দোলনরত গার্মেন্টস শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়।

প্রথমে আন্দোলনরত শ্রমিকরা একটি মিছিল নিয়ে মিরপুর ১২ নম্বর বাসস্ট্যান্ডের দিকে যান। পরবর্তীতে মিরপুর ১১ নম্বর পূরবী সিনেমা হলের সামনে এসে সড়কে অবস্থান নেন। আরেকটি মিছিল সকাল সাড়ে ৯টা নাগাদ মিরপুর ১০ নম্বর গোল চত্বরের দিকে যায়।

পোশাক শ্রমিকরা জানান, গত মঙ্গলবার সকালে ঘটনার সূত্রপাত হয় পল্লবীতে ইপিলিয়ন নিটওয়্যারস লিমিটেডের একটি কারখানার কর্মীদের আটকে রাখাকে কেন্দ্র করে। অন্য কারখানার শ্রমিকদের আন্দোলনে ইপিলিয়নের কর্মীরা যুক্ত হতে পারেন, এমন আশঙ্কা থেকে তাদের বের হতে দেওয়া হচ্ছিল না।

কারখানাটির আশপাশের এলাকায় লাঠিসোঁটা নিয়ে স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তিদের অনুসারীরা শ্রমিকদের ভয় দেখাচ্ছিলেন। এ নিয়ে ইপিলিয়নের কর্মীদের সঙ্গে তাদের প্রথমে বাগবিতণ্ডা হয়। এর জের ধরে পোশাককর্মীদের ওপর হামলা করেন তারা।

পুলিশ বলছে, মিরপুরের দুই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শ্রমিকদের বুঝিয়ে সড়ক থেকে সরানোর চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে তারা দুই ওসির ওপর হামলা করেন। পরে পুলিশ টিয়ারশেল ও সাউন্ড গ্রেনেড ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

ইত্তেফাক/এসকে