বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

অরিক্স ফেব্রিক কেয়ার ও ওয়ালটনের মধ্যে ব্যবসায়িক চুক্তি সই

আপডেট : ২৩ নভেম্বর ২০২৩, ১৯:৫৬

নিজেদের ব্র্যান্ডের প্রমোশনাল কর্মকাণ্ড ত্বরান্বিত করতে এবং ভোক্তাদের নতুন লন্ড্রি ক্লিনিং এক্সপেরিয়েন্স দিতে দেশের শীর্ষ ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ড ওয়ালটনের সঙ্গে কৌশলগত ব্যবসায়িক অংশীদারত্বের সমঝোতা চুক্তি করলো আমেরিকা-ভিত্তিক হোমকেয়ার পণ্যের ব্র্যান্ড অরিক্স।

বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) রাজধানীর গুলশানে রিমার্ক এইচবি লিমিটেডের কর্পোরেট অফিসে উভয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে এ সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এই চুক্তির আওতায় ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্সকে লিকুইড ডিটারজেন্ট সরবরাহ করবে অরিক্স, যা ওয়াশিং মেশিন বিক্রির সময় ক্রেতাদের বিনামূল্যে প্রদান করবে ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ। এসব ওয়াশিং মেশিনের মাধ্যমে অরিক্স ডিটারজেন্ট পণ্যের প্রমোশনাল কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। এ ক্ষেত্রে পণ্যের প্রচারে প্যাকেজিং পর্যায়ে, লিফলেটে, প্রমোশনাল কার্যক্রমে, ক্যাম্পেইন কিংবা অ্যাডভারটাইজমেন্টে ওয়ালটন ওয়াশিং মেশিনের লোগো ও ব্র্যান্ড নেম ইত্যাদি ব্যবহার করবে অরিক্স। পাশাপাশি দেশব্যাপী ছড়িয়ে থাকা ওয়ালটনের আউটলেট এবং প্লাজাগুলোতে প্রমোশনাল বুথ খুলবে ওয়ালটন।

রিমার্ক এইচবি লিমিটেডের হোম অ্যান্ড পার্সোনাল কেয়ারের বিজনেস হেড খন্দকার মো. মোমিনুল হক বলেন, ফেব্রিক কেয়ারে বাংলাদেশের ভোক্তাদের সেবার পাশাপাশি দারুণ কিছু চমক দিতে কাজ করে যাচ্ছে অরিক্স। ওয়ালটন ওয়াশিং মেশিনের সঙ্গে আমাদের এই পার্টনারশিপ ভোক্তাদের প্রত্যাশা পূরণ করে তাদের একটি নতুন লন্ড্রি ক্লিনিং এক্সপেরিয়েন্স দিবে বলেই আমাদের বিশ্বাস।’

ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্সের প্রধান ব্যবসায়িক কর্মকর্তা (সিবিও) মোস্তফা কামাল বলেন, ‘ক্রেতাদের হাতে আন্তর্জাতিকমানের ওয়াশিং মেশিন তুলে দেওয়ার পাশাপাশি সর্বোচ্চ সেবা ও সুবিধা প্রদানে বদ্ধপরিকর ওয়ালটন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ওরিক্সের সঙ্গে কৌশলগত ব্যবসায়িক অংশীদারত্বের এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এর ফলে ওয়ালটন ওয়াশিং মেশিনের ক্রেতারা অরিক্সের ফেব্রিক কেয়ার সলিউশনের মাধ্যমে লন্ড্রি ক্লিনিংয়ে এক নতুন অভিজ্ঞতা পাবে।

ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্সের চিফ বিজনেস অফিসার (সিবিও) মোস্তফা কামাল এবং রিমার্ক এইচবি লিমিটেডের হোম অ্যান্ড পার্সোনাল কেয়ারের বিজনেস হেড খন্দকার মো. মোমিনুল হক নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে সই করেন। এ সময় উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, দেশের ইলেক্ট্রনিক্স বাজারে প্রায় চার যুগ ধরে বিশ্বমানের সেবা দিয়ে আসছে ওয়ালটন। পাশাপাশি, পণ্য রপ্তানির মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে এই ব্র্যান্ডটি উল্লেখযোগ্য অবদান রেখে চলেছে।

ইত্তেফাক/এবি